Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৪ মার্চ, ২০১৭ ১৪:৪৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
গো-হত্যা ঠেকাতে গুজরাটে যাবজ্জীবন জেল!
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
গো-হত্যা ঠেকাতে গুজরাটে যাবজ্জীবন জেল!

গরু হত্যা ও এর মাংস এক স্থান থেকে আরেক স্থানে পাচার বন্ধে আরও কঠোর আইন চালু করতে চলেছে ভারতের গুজরাট রাজ্য সরকার। রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি নিজেই এ তথ্য জানিয়েছেন।

সম্প্রতি রাজ্যটির জুনাগড় জেলার বান্থালি শহরে স্বামী নারায়ণ গুরুকূলের এক অনুষ্ঠানে বিজয় রুপানি জানান, নতুন আইনে গরু হত্যা ও এর মাংস পাচারে জড়িতদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের ব্যবস্থা থাকবে। পাচারে ব্যবহৃত যানটিও বাজেয়াপ্ত করা হবে। খুব শিগগির এই নতুন আইন হবে বলে।

গরুকে বাঁচাতে ২০১১ সালে বিজেপি সরকার প্রথম একটি আইন চালু করেছিল। মুখ্যমন্ত্রী জানান, গুজরাটে গরু রক্ষা আইন চালু না করা পর্যন্ত আমরা মামলা লড়েছি। এখন আমরা চাই সেই আইন আরও কঠোর করা হোক। এজন্য আগামী সপ্তাহে গুজরাট বিধানসভার চলতি বাজেট অধিবেশনেই একটি বিল আনা হবে।

নরেন্দ্র মোদী গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন সময়ে গুজরাট রাজ্য সরকার ১৯৫৪-র গুজরাট পশু সংরক্ষণ আইন’এর বদল ঘটিয়ে ২০১১ সালে একটি বিল আনেন। যার উদ্দেশ্যে হল গো-হত্যা, এর মাংস নিয়ে আসা, পাঠানো, বিক্রি পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা।

তখন থেকেই এই সম্পর্কিত অপরাধগুলো গুজরাট পশু সংরক্ষণ (সংশোধন) আইন-২০১১ এর আওতাধীন হয়। এই আইনের ফলে এই সম্পর্কিত যাবতীয় অপরাধের সাজা হল ৫০ হাজার রুপি জরিমানা ও সাত বছর পর্যন্ত জেল। এবার সেই আইন বদলে ফেলে আরও কঠোর করা হচ্ছে। নতুন আইনে এই একই অপরাধে যাবজ্জীবন জেল হতে পারে।


বিডি প্রতিদিন/১৪ মার্চ, ২০১৭/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow