Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৮ মার্চ, ২০১৭ ০১:৪৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
ধর্ম অবমাননাকর পোস্ট রুখতে ফেসবুকের দ্বারস্থ পাকিস্তান
অনলাইন ডেস্ক
ধর্ম অবমাননাকর পোস্ট রুখতে ফেসবুকের দ্বারস্থ পাকিস্তান

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাকিস্তানিদের পোস্ট করা “ধর্মীয় অবমাননামূলক পোস্ট’ কাদের তরফে করা হচ্ছে তাজ জানতে চায় পাক সরকার। এ বিষয়ে দেশটির সরকার ফেসবুকের সাহায্য চেয়েছে।

পাক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানাচ্ছে, সোশাল সাইটে ধর্ম অবমাননাকর বিষয়টির মোকাবিলায় ফেসবুক পাকিস্তানে একটি দল পাঠাতে রাজি হয়েছে। যদিও এই বিষয়ে কিছুই জানায়নি ফেসবুক।

পাকিস্তানে ধর্মীয় অবমাননা খুবই স্পর্শকাতর বিষয়। দেশটির ব্লাসফেমি আইনে কোনও কোনও ক্ষেত্রে মৃত্যুদণ্ডের বিধান দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ, পাক সংখ্যালঘু শিখ, হিন্দু, খ্রিস্টান ও বৌদ্ধদের সংখ্যালঘুদের বিপদে ফেলতে প্রায়ই আইনটির অপব্যবহার করা হয়।

সম্প্রতি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ সোশাল মিডিয়ায় ধর্মীয় অবমাননাকর বিষয়বস্তু পোস্ট রুখতে অভিযান চালানোর পক্ষে মত দিয়েছেন। ধর্ম অবমাননাকে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ বলে উল্লেখ করেছে পাক প্রধানমন্ত্রীর দফতর।

সম্প্রতি বেশ কয়েকজন (অন্তত পাঁচজন) পাকিস্তানি ব্লগার নিখোঁজ হয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে সোশাল মিডিয়ায় ধর্মীয় অবমাননাকর বিষয় পোস্ট করার অভিযোগ আনা হয়েছে। এরপরে সোশাল সাইট থেকে সংশ্লিষ্ট ব্লগারদের বিষয়ে জানতে চেয়ে ফেসবুক-কে অনুরোধ করা হয়েছে। পাক সরকারের এই অনুরোধ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছে ফেসবুক।

বিডি প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

up-arrow