Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • এমপি বদিসহ মাদকের সাথে যেই জড়িত থাক না কেন সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের
  • ঈদে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ১ জুন
  • প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক ; এবার ভেনেজুয়েলার দুই কূটনীতিককে বহিষ্কার করল যুক্তরাষ্ট্র
  • পৃথিবীর হয়ে যুক্তরাষ্ট্র সিদ্ধান্ত নেবে না, রুহানির হুঙ্কার
  • ডিএসসিসির নির্দেশনা উপেক্ষা করে বেশি দামে মাংস বিক্রির অভিযোগ
  • তালিকা অনুযায়ী সব মাদক ব্যবসায়ীকে আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • মাদকবিরোধী অভিযানে পাঁচ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৮ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
প্রকাশ : ২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ১০:৫৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ১২:৫১
এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ারে জোর দিচ্ছে চীন-ভারত
অনলাইন ডেস্ক
এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ারে জোর দিচ্ছে চীন-ভারত

বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে নিজেদের সামরিক বাহিনীকে আরও শক্তিশালী করতে ব্যস্ত বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলো। আর তারই জের ধরে ২০১৯ অথবা ২০২০ সালের মধ্যেই চীনের তৃতীয় ক্যারিয়ার ০০২ লঞ্চ হতে চলেছে।

এতে রয়েছে ইলেকট্রোম্যাগনেটিক লঞ্চারস। ০০২ এর আধুনিকীকরণের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে অনেক বেশি। হামলার সময় শত্রুকে টার্গেট করতেও সুবিধা হবে এই এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ারের।

২০১১ সালে শেষ হয় চীনের প্রথম এয়ারক্র্যাফ্ট তৈরির কাজ। এরপর চীন দ্বিতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট তৈরি করে। এটি নির্মিত হয় সাংহাই শিপইয়ার্ডে। এটি তৈরি করতে সময় লেগেছিল প্রায় দুই বছর। এ বছর সেটি লঞ্চ করার কথা। এই ধরনের এয়ারক্র্যাফ্ট পরিচালনার জন্য চীন পাইলটদেরও ট্রেনিং দিচ্ছে। গোটা বিশ্বের নজর কাড়তে দেশের নৌ শক্তির দিকেও নজর দিচ্ছে চীন। ২০৩০ সালের মধ্যে ৪টি এয়ারক্র্যাফ্ট বানানোর টার্গেট নেওয়া হয়েছে।

এদিকে, পিছিয়ে নেই ভারতও। ভারতীয় নৌবাহিনী তাদের তৃতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ার ২০২০ সালের শেষের দিকে আনার পরিকল্পনা করছে, যার নাম হতে পারে বিশাল। ৬৫,০০০ টনের এই বিশাল, ভারতের বিক্রমাদিত্যর থেকেও বৃহৎ হবে বলে জানা গেছে। দেশের মাটিতে তৈরি বিক্রান্ত, ২০১৮ সালের শেষের দিকেই কাজ শুরু করতে পারে। বিশালে রয়েছে ৫৭টি ফাইটার। পাশাপাশি তৃতীয় এয়ারক্র্যাফ্ট ক্যারিয়ারের ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক লঞ্চ সিস্টেমেও জোর দিচ্ছে ভারত।

বিডি প্রতিদিন/২২ জানুয়ারি, ২০১৮/ওয়াসিফ

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow