Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • মধ্যরাতে তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চার মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছে। এরমধ্যে কুমিল্লায় ২ জন, চুয়াডাঙ্গা ও চট্টগ্রামে একজন করে নিহত হয়েছে।
  • কক্ষপথে পৌঁছেছে বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১
প্রকাশ : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০৬:০২ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০৯:১৭
বিশ্বে ৩০ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু শিগগিরই, শীর্ষে পাকিস্তান
অনলাইন ডেস্ক
বিশ্বে ৩০ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু শিগগিরই, শীর্ষে পাকিস্তান

অপেক্ষা আর এক বছরের! শ্বাসকষ্টজনিত রোগে বিশ্বের ৩০ মিলিয়ন মানুষ প্রাণ হারাবেন। এমনই আশঙ্কা প্রকাশ করেন বিল গেটস। তিনি জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের মধ্যেই এই বিপুল পরিমাণে মানুষ প্রাণ হারাবেন। 

গত ১০-১৫ বছরে পৃথিবীতে এই ধরণের কোনো মহামারির উল্লেখ পাওয়া যায়নি বলেও জানান বিল গেটস। এই মহামারিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হতে যাচ্ছে পাকিস্তান।

ইউএস সেন্টারস ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের সমীক্ষায় এমনই একটি তথ্য উঠে এসেছে। এই সংস্থাটি ৪৯টি দেশের উপরে গ্লোবাল হেলথ সিকিউরিটি অ্যাজেন্ডার উপরে কাজ করছে। এই দেশের মধ্যে রয়েছে- চীন, হাইতি, রাওয়ান্ডা, ইন্দোনেশিয়া এবং ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অফ কঙ্গো। 

এই সমস্ত দেশেই এয়ারবোর্ন প্যাথোজেন মহামারীর আকার নিতে চলেছে বলে জানাচ্ছে ওই সংস্থা। ২০১৯ সালের মধ্যেই ৪৯টি দেশ ওই মহামারীর কবলে পড়তে যাচ্ছে। 

২০১৪ থেকে ২০১৬ সাল। পশ্চিম আফ্রিকাতে জাল বিস্তার করেছিল ইবোলা ভাইরাস। এই ভাইরাস প্রায় ১১ হাজার সাধারণ মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছিল। এরপরই ইবোলা ভাইরাসের মত রোগ যাতে মহামারি আকার না নেয়, সেই কারণে উদ্যোগ নিয়েছিল ইউএস সেন্টারস ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন। 

উল্লেখ্য, এই মহামারীর জেরে আমেরিকার স্বাস্থ, অর্থনীতি এবং জাতীয় নিরাপত্তা প্রশ্নের মুখে পড়তে যাচ্ছে বলে মত প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। 

বিডি প্রতিদিন/০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow