Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৩ মার্চ, ২০১৮ ১৬:২৩ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ মার্চ, ২০১৮ ১৬:৪২
ট্রাম্পের দেওয়া ডলার ফিরিয়ে দিতে আগ্রহী পর্নস্টার ক্লিফোর্ড
অনলাইন ডেস্ক
ট্রাম্পের দেওয়া ডলার ফিরিয়ে দিতে আগ্রহী পর্নস্টার ক্লিফোর্ড
ফাইল ছবি
bd-pratidin

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নানা কর্মকাণ্ডে বারবার বিতর্কিত হচ্ছেন। অভিযোগ উঠে, পর্নস্টারের সাথে আপত্তিকর সম্পর্ক গোপন রাখার জন্য ১ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ এবার পর্নস্টার ক্লিফোর্ড সেই ডলার ট্রাম্পকে ফিরিয়ে দিতে চান৷

পর্নস্টার স্টিফানি ক্লিফোর্ড অভিযোগ তুলেছেন, পেশাদার জগতে তার নাম স্টর্মি ড্যানিয়েল৷ তিনিও চাইছেন না ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার যা সম্পর্ক ছিল, তা নিয়ে আর পানিঘোলা হোক৷ ডোনাল্ড ট্রাম্পের থেকে তিনি যে ডলার নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছিল, তাও তিনি ফিরিয়ে দিতে চান৷ তার আইনজীবী মাইকেল আবেনাত্তি বলেছেন, অফারটা খুব একটা খারাপ নয়৷ দুই পক্ষের কথাবার্তা শুনে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষই বলুক সত্যিটা কী৷

কলকাতা টুয়েন্টিফোর'র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এই নিয়ে সোমবার ট্রাম্পের আইনজীবী মাইকেল কোহেনকে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন আবেনাত্তি৷ সেখানে তিনি জানিয়েছেন, অভিনেত্রী ওই ডলার ফিরিয়ে দিতে আগ্রহী৷ ট্রাম্প তাঁর পছন্দমতো যেকোন অ্যাকাউন্টে সেই ডলার ট্রান্সফার করাতে পারেন৷ তবে যা করবেন ট্রাম্প, তা যেন শুক্রবারের মধ্য করেন৷ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত কোহেনকে ডেডলাইন দিয়েছেন আবেনাত্তি৷

সাম্প্রতিক এক স্ক্যান্ডালে অভিযোগ ওঠে স্টেফানির সঙ্গে যৌন সম্পর্ক ছিল ট্রাম্পের। শুধু তাই নয়, ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচার শুরু হওয়ার পরে স্টেফানি যাতে আর এই বিষয়ে মুখ না খোলেন, তা নিশ্চিত করতে স্টেফানিকে মোটা অংকের ডলার দেওয়া হয়েছে।  ২০০৬ সালে একটি গলফ টুর্নামেন্টে আলাপ হয়েছিল ট্রাম্প ও স্টেফানির। তখন ট্রাম্পের বয়স ৭১, স্টেফানির ৩৮। সেখানেই নাকি ঘনিষ্ঠ মুহূর্ত কাটিয়েছিলেন তারা। তারপরে ২০১৬ সালে প্রচার শুরু হওয়ার সময় স্টেফানিকে মুখ বন্ধ রাখার জন্য ডলার দেন ট্রাম্প।  যদিও স্টেফানি বলেছেন, ট্রাম্পের সঙ্গে আলাপ হয়েছিল ঠিকই, তবে কোনো শারীরিক সম্পর্ক হয়নি। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow