Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১০:৪৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:৫৭
চালক মুসলিম বলে ক্যাবের বুকিং বাতিল করল হিন্দু পরিষদের নেতা
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
চালক মুসলিম বলে ক্যাবের বুকিং বাতিল করল হিন্দু পরিষদের নেতা
হিন্দু পরিষদের নেতা অভিষেক মিশ্র

চালক মুসলিম হওয়ায় ওলা ক্যাবের বুকিং বাতিল করলেন ভারতের লখনউয়ের বিশ্ব হিন্দু পরিষদের (ভিএইচপি) এক নেতা। পরে অভিষেক মিশ্র নামে ওই ভিএইচপি নেতা ট্যুইটও করেন। গত শুক্রবার ট্যুইটে জানান, ‘ক্যাব বুকিং বাতিল করলাম, কারণ চালক একজন মুসলিম। কোন জেহাদি মানুষকে আমি আমার অর্থ দিতে চাই না’। বিষয়টি সামনে আসার পরই শুরু হয়েছে বিতর্ক। নিশানা করা হয়েছে অভিষেককে। 

এরপরই রবিার এই কাজের জন্য নিজের স্বপক্ষে যুক্তিও দিয়েছেন অভিষেক। নিজেকে একজন হিন্দুত্ববাদী নেতা বলে পরিচয় দেওয়া অভিষেক ট্যুইট করে জানান, জম্মু-কাশ্মীরের কাঠুয়ায় আট বছরের এক কিশোরীকে গণধর্ণণ ও খুনের ঘটনার পরই বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলিতে হিন্দু দেব-দেবীদের সম্পর্কে বিতর্কিত পোস্ট করা হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় হিন্দু দেব-দেবী ও প্রতীকের ভাবমূর্তি কালিমাল্পিত করার প্রতিবাদেই তিনি এই কাজটি করেছেন। তিনি আরও বলেন, ‘মানুষ এখন আমাকে নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছে। আমার কি ভাল-মন্দ লাগার ওপর কোনো অধিকার নেই? কাঠুয়ার ঘটনায় তারা যদি ক্যাবে হনুমানের পোস্টার লাগিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রচারণা চালাতে পারে, হিন্দু দেব-দেবীদের নিন্দা করতে পারে, তবে তারা তো তার উত্তর পাবেই’। 

এদিকে এই ঘটনার পরই ট্যুইটারে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। সমালোচনা করেন দেশটির বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতারাও। দলের পক্ষ থেকেও এই ঘটনার নিন্দা করা হয়েছে। ভিএইচপি মুখপাত্র শরদ শর্মা নিশ্চিত করেছেন যে, অভিষেক মিশ্র একজন ভিএইচপি কর্মী। কিন্তু ট্যুইটার পোস্ট সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত অভিমত। এর সঙ্গে দলের কোন সম্পর্ক নেই। 

তবে এই মন্তব্য করার জন্য অভিষেকের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপই নিচ্ছে না ট্যুইটার কর্তৃপক্ষ। কারণ এই ট্যুইটটি কোন নিয়ম-কানুনই ভঙ্গ করেনি। 

বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছে ওলা ক্যাব কর্তৃপক্ষও। তারা জানিয়েছে, ‘আমাদের মতো রাষ্ট্রে ওলা একটা ধর্মনিরপেক্ষ প্ল্যাটফর্ম। এখানে আমরা চালক, গ্রাহকদের মধ্যে জাতি, ধর্ম বা লিঙ্গের ভিত্তিতে কোন বিভেদ তৈরি করতে চাই না। আমরা সকল গ্রাহক ও চালকদের সবসময়ই সম্মান দিয়ে থাকি’। 

বিডি-প্রতিদিন/২৩ এপ্রিল, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow