Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০২:৫৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৯:৪৩
বাংলাদেশ-মিয়ানমার হয়ে কুনমিং থেকে কলকাতা বুলেট ট্রেন!
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
বাংলাদেশ-মিয়ানমার হয়ে কুনমিং থেকে কলকাতা বুলেট ট্রেন!

চীনের কুনমিং থেকে কলকাতা পর্যন্ত (ভায়া মিয়ানমার ও বাংলাদেশ) দ্রুতগামী ট্রেন পরিষেবা চালু করার বিষয়ে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে চীন। বুধবার একথা জানিয়েছেন কলকাতাস্থ চীনা কনসাল জেনারেল মা ঝানউ।

এদিন সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলন করে ঝানউ জানান ‘চীন, পূর্ব ভারত, মিয়ানমার এবং বাংলাদেশে বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের সম্ভাবনা বৃদ্ধিতে ভারত ও চীনের যৌথ প্রচেষ্টায় এই দুই শহরের মধ্যে দ্রুতগামী ট্রেন পরিষেবা চালু করা উচিত বলে আমি মনে করি।’

তাঁর অভিমত ২৮০০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রেল প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে কুনমিং থেকে মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যেই ট্রেনে করে কলকাতা পৌঁছে যাওয়া যাবে। ২০১৫ সালে কুনমিং-এ অনুষ্ঠিত ‘গ্রেটার মেকং সাবরিজিয়ন’ (জিএমএস)-এর বৈঠকেও এই দ্রুতগামী রেল পরিষেবা চালু করার বিষয়ে প্রস্তাব রাখা হয়েছিল বলেও জানান চীনের কনসাল জেনারেল।

ঝানউ জানান ‘এই প্রকল্পটি সংযুক্ত দেশগুলোকে অর্থনৈতিকভাবে অগ্রসর হতে সহায়তা করবে। এই রেললাইন বরাবর আমাদের অনেকগুলো শিল্প থাকতে পারে যেগুলো বাংলাদেশ-চীন-ইন্ডিয়া-মিয়ানমার (বিসিআইএম) করিডোর ভুক্ত দেশগুলোর অর্থনৈতিক উন্নয়নের সম্ভাবনাকে আরও বাড়িতে তুলবে’।

তিনি আরও বলেন ‘বহু বছরের পুরোনো সিল্ক রুটের পুনরুজ্জীবনের লক্ষ্যেই চীন চায় কুনমিং থেকে শুরু করে মিয়ানমার এবং বাংলাদেশের মধ্যে দিয়ে এই ট্রেন কলকাতায় এসে পৌঁছাক।’

চীনা কনসাল জেনারেলের অভিমত ভারত ও চীন সামনের দিকে অগ্রসর হতে উভয় দেশই একে অপরকে সহায়তা করা উচিত। এককভাবে কেউই কোন সমস্যার সমাধান করতে পারে না। অনেক চীনা শিল্পপতি রয়েছেন যারা ভারতে বিনিয়োগ করতে চায়। 

 

বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow