Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:২৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:৫৩
'ইয়েমেনের শিশুরা এতোই দুর্বল যে, কাঁদতেও পারছে না'
অনলাইন ডেস্ক
'ইয়েমেনের শিশুরা এতোই দুর্বল যে, কাঁদতেও পারছে না'

সেভ দ্য চিলড্রেনের প্রধান নির্বাহী হেরে থরনিং জানিয়েছেন, ইয়েমেনে খাদ্য সংকট এতটা তীব্র যে লাখ লাখ শিশু জানে না, পরের বেলার খাবার তাদের জুটবে কি না। 

তিনি মনে করেন, এই যুদ্ধের কারণে জীবনশঙ্কার পাশাপাশি ক্ষুধা ও কলেরার মতো রোগের সঙ্গে নিত্যদিন লড়াই করে যেতে হচ্ছে শিশুদের।

হেরে থরনিং বলেন, ইয়েমেনের উত্তরাঞ্চলের একটি হাসপাতালে দেখি, শিশুরা এতোই দুর্বল যে তারা কাঁদতেও পারছে না।

গত মাসে সেভ দ্য চিলড্রেন জানায়, ভয়াবহ অপুষ্টিতে ভোগা পাঁচ বছরের কম বয়সী চার লাখ শিশুকে সহায়তা দিয়েছেন তারা। তাদের অনুমান চলতি বছরের শেষের দিকে ৩৬ হাজারের বেশি শিশুর প্রাণহানি হতে পারে।  

কয়েকদিন আগে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ বলেছে, ইয়েমেন এখন শিশুদের জন্য জাহান্নামে পরিণত হয়েছে। দেশটির এক কোটি ১০ লাখ শিশু চরম খাদ্য সংকট ও নানা ধরনের অসুখে ভুগছে। এদের অনেকেই ঘরবাড়ি হারিয়ে শরণার্থীতে পরিণত হয়েছে।

আমেরিকা ও সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ আরও কয়েকটি দেশের সহযোগিতায় ২০১৫ সালের মার্চ থেকে দরিদ্র প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনে হামলা শুরু করেছে সৌদি আরব। তাদের হামলায় এ পর্যন্ত শিশুসহ ১৪ হাজারের বেশি ইয়েমেনি নিহত হয়েছেন। 

সম্প্রতি শিশুদের বহনকারী একটি বাসে হামলা চালিয়ে স্কুলগামী বহু শিশুকে হত্যা করেছে সৌদি বাহিনী।

বিডি প্রতিদিন/১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮/আরাফাত

আপনার মন্তব্য

up-arrow