Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ২২:৪৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ২৩:০০
'অপরাধের সহযোগী যুক্তরাষ্ট্র সৌদির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাই নেবে না'
অনলাইন ডেস্ক
'অপরাধের সহযোগী যুক্তরাষ্ট্র সৌদির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাই নেবে না'

আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সৌদি আরবের সব ধরনের অপকর্মে আমেরিকার সংশ্লিষ্টতা থাকায় ওয়াশিংটন এ রাজতান্ত্রিক সৌদি সরকারকে কখনোই শাস্তি দেবে না। এ মন্তব্য করেছেন আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়ার স্কলার এবং রাজনৈতিক ভাষ্যকার ড. ডেনিস এলটার।

সৌদি সরকার বিরোধী ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোখির রহস্যজনক নিখোঁজের ঘটনায় রিয়াদকে জবাবদীহী করতে হবে বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন তাও নাকচ করে দেন তিনি।    

গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলস্থ সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর থেকে জামাল খাশোগি নিখোঁজ রয়েছেন। তুরস্কের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো তাদের কাছে থাকা তথ্যপ্রমাণের ওপর ভিত্তি করে বলেছে, সৌদি কনস্যুলেটে ঢোকার পর খাশোগিকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয় এবং পরে তার লাশ টুকরা টুকরা করে গোপনে ওই কূটনৈতিক মিশন থেকে বাইরে নেয়া হয়। সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সরাসরি নির্দেশেই খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলেও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোক পূর্বাভাস দিয়েছে।  

ট্রাম্প বলেছিলেন,  খাশোগির নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার পেছনে সৌদি ক্ষমতাসীনদের হাত থাকলে তাদেরকে ‘চরম পরিণতি’ ভোগ করতে হবে। অবশ্য একইসঙ্গে ট্রাম্প একথাও বলেছিলেন, রিয়াদের কাছে হাজার হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির চুক্তি বাতিল করার ইচ্ছে তার নেই। কারণ, আমেরিকা নিজেই নিজেকে শাস্তি দিতে পারে না।

এলটার বলেন, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান যাতে তার এ  জঘন্য অপরাধ থেকে পার পেয়ে যান তার জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প  চেষ্টা করে যাচ্ছেন।  

তিনি বলেন, সৌদি আরবের শক্তিমান পুরুষ বিন সালমান ভাল করেই জানেন যে আমেরিকা এ ঘটনায় বাইরে থেকে কেবল ক্ষোভ প্রকাশ করবে এবং তার মারাত্মক অপরাধের বিষয়ে ওয়াশিংটন কোনো ব্যবস্থাই গ্রহণ করবে না। এছাড়া রিয়াদ এবং ওয়াশিংটনের মধ্যে শক্তিশালী রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক সম্পর্কের প্রতি ইঙ্গিত করে আমেরিকার এ রাজনৈতিক ভাষ্যকার বলেন, নিজেদের মধ্যে দৃঢ় সম্পর্কের ভিত্তি থেকে দুই পক্ষ কখনোই দূরে সরে যাবে না।-রেডিও তেহরান

বিডি প্রতিদিন/১৮ অক্টোবর ২০১৮/আরাফাত

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow