Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২০ অক্টোবর, ২০১৮ ১৩:৩৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২০ অক্টোবর, ২০১৮ ১৪:৫২
সবুজ সঙ্কেত পেয়েছিলেন অমৃতসরের সেই ট্রেনচালক
অনলাইন ডেস্ক
সবুজ সঙ্কেত পেয়েছিলেন অমৃতসরের সেই ট্রেনচালক

ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের অমৃতসর শহরের জোড়া ফটকের কাছে দশেরা উৎসবে রাবণের কুশপুত্তলিকা জ্বালানোর সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রাণ হারিয়েছেন ৬১ জন, আহত ৭২। রেললাইনের ধারে দাঁড়িয়ে প্রায় ৩০০ মানুষ দশেরা উৎসব দেখছিলেন, সেই সময়ই ট্রেন সেখানে এসে পড়ে। কুশপুত্তলিকা পোড়ানোর শব্দে ট্রেনের আওয়াজ কেউ শোনেনি। ট্রেনটি এসেছিল অন্ধকারে, এ জন্য কোনো অ্যালার্ম বাজানো হয়নি। আয়োজক কর্তৃপক্ষ কোনো সতর্কতা জারি করেনি।

দুর্ঘটনার পরেই লুধিয়ানা রেলওয়ে স্টেশনে চালককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তিনি বলেছেন, তাকে অল ক্লিয়ার সিগন্যাল দেওয়া হয়েছিল। সবুজ সঙ্কেত পেয়ে তিনি অনুমানও করতে পারেননি অদূরেই এত বড় একটা জটলা হয়ে আছে।
 
প্রসঙ্গত চালকের যুক্তি মানলে সেক্ষেত্রে তাহলে দায় বর্তায় লাইনসম্যানের ওপর। রেলওয়ে সূত্রে খবর, জোড়াফটক অঞ্চলের লাইমনসম্যানকে জেরা করা হচ্ছে। অন্য দিকে পাঞ্জাব ও দিল্লির রেল কর্মকর্তারা বলছেন, এত বড় দশেরার আয়োজন নাকের ডগায়, রাজ্য পুলিশ তাদের জানায়নি, এমনকি নিজেরাও জনসুরক্ষার বন্দোবস্ত করেনি।  

প্রসঙ্গত, পাঞ্জাব সরকার ইতিমধ্যেই মৃতদের পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা ও আহতদের চিকিৎসার সমস্ত ব্যয় বহনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।  
 
রেল প্রতিমন্ত্রী মনোজ সিংহ শুক্রবার রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে জানিয়েছেন, গোটা ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সরকারি, বেসরকারি সব হাসপাতালগুলিকে। রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল বিদেশ সফর থেকে তড়িঘড়ি ফিরে আসছেন।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow