Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২২ অক্টোবর, ২০১৮ ১৩:২৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২২ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:১০
খাশোগির প্রেমিকার জীবন নিয়ে শঙ্কা, নিরাপত্তা দিচ্ছে তুরস্ক!
অনলাইন ডেস্ক
খাশোগির প্রেমিকার জীবন নিয়ে শঙ্কা, নিরাপত্তা দিচ্ছে তুরস্ক!

সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার পর প্রেমিকা হ্যাতিস সেঙ্গিজ'র জীবন নিয়ে শঙ্কা দেখা দেওয়ার তাকে ২৪ ঘন্টার নিরাপত্তা দিচ্ছে তুরস্ক সরকার। খাশোগির নিখোঁজের ঘটনা মিডিয়াকে হ্যাতিসই প্রথম জানিয়েছিলেন।   

ইস্তাম্বুল গভর্নরের অফিসে থেকে একটি নির্দেশনায় বলা হয়েছে, হ্যাতিস সেঙ্গিজকে নিরাপত্তা দিতে হবে। এ নির্দেশের ফলে ইস্তাম্বুল পুলিশ ডিপার্টমেন্ট তাকে নিরাপত্তা দেবে। জানা যায়, হ্যাতিস ইস্তাম্বুলে একজন ডক্টরাল স্টুডেন্ট। 

গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলস্থ সৌদি কনস্যুলেট থেকে খাশোগি নিখোঁজ হয়। ঘটনার পর প্রথম দিকে সৌদি সরকার দাবি করে আসছিল, তিনি কনস্যুলেট থেকে জীবিত অবস্থায় বেরিয়ে গেছেন। 

ওইদিন জামাল খাশোগি প্রেমিকা হ্যাতিসকে বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করতে ইস্তাম্বুলে সৌদি আরবের কনসুলেটে প্রবেশ করেন।  কাগজ সংগ্রহ করেই প্রেমিকাকে বিয়ে করার কথা ছিল তার। হ্যাতিস সেদিন তার প্রেমিকের ফিরে আসার অপেক্ষায় কনসুলেটের বাইরে অপেক্ষমাণ ছিলেন। 

এদিকে, সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে নিরাপত্তা কর্মকর্তারা খুন করেছে বলে দাবি করেছেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়ের। রবিবার মার্কিন টিভি চ্যানেল ফক্স নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এমনটি দাবি করে বলেছেন, এটা ছিল 'ভয়ঙ্কর ভুল'। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এমন মন্তব্যে খাশোগির মৃত্যুর ঘটনায় আগের দেওয়া বক্তব্য থেকে ফের সরে এসেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

এর আগের এক বিবৃতিতে সৌদি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, জামাল খাশোগি সৌদি কনস্যুলেটে ঢোকার পরপরই সেখানে উপস্থিত সৌদি কর্মকর্তাদের সাথে তার হাতাহাতি শুরু হয়। সে সময় কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা কাটাকাটির জেরে মারামরির ঘটনায় খাশোগি নিহত হয়েছেন।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই কর্মকর্তার বর্ণনা অনুযায়ী, যে ১৫ সদস্যের দল সৌদি আরব থেকে গিয়েছিল, তারা জামাল খাশোগিকে ওষুধ দিয়ে অচেতন করে অপহরণের হুমকি দেয়।  কিন্তু খাশোগি তাতে বাধা দিলে তখন তাকে জাপট ধরলে তিনি শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যান। এরপর এই সৌদি দলের একজন সদস্য জামাল খাশোগির কাপড় খুলে তা পরেন এবং কনস্যুলেট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ভান করেন যেন মনে হয় জামাল খাসোগজি আসলেই বেরিয়ে গেছেন।

উল্লেখ্য, এ নিয়ে জামাল খাশোগির ঘটনা সম্পর্কে সৌদি ভাষ্য বেশ কয়েকবার পরিবর্তিত হলো। সৌদি আরব প্রথমে জোর গলায় এই খবর অস্বীকার করেছিল যে কনস্যুলেটের ভেতর থেকে জামাল খাশোগি নিখোঁজ হয়েছেন। তারা দাবি করেছিলেন, খাশোগি কনস্যুলেট ভবন থেকে বেরিয়ে যান। ঘটনার বেশ কয়েকদিন পর সৌদি আরব স্বীকার করে যে, জামাল খাশোগি কনস্যুলেটের ভেতরেই মারা যান।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow