Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ২০:৩০ অনলাইন ভার্সন
চীনকে যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি!
অনলাইন ডেস্ক
চীনকে যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি!
প্রতীকী ছবি

উত্তর কোরিয়ার পারমাণমিক কর্মসূচি নিয়ে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বিশ্বাস-অবিশ্বাসের খেলা শুরু হয়েছে।  এরই মধ্যে উত্তর কোরিয়ার ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা চীন শিথিল করেছে বলে অভিযোগ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার মার্কিন কংগ্রেশনাল কমিশনের এমন দাবির পরই নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দেয় ওয়াশিংটন।

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স জানিয়েছেন, কোরীয় সঙ্কট সমাধানে পিয়ংইয়ংয়ের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে হবে।  তবে চীনের বিরুদ্ধে উত্তর কোরিয়ার উপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা অমান্য করার অভিযোগ তুলে বুধবার অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন-চীন বাণিজ্য ও নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ কমিশন। প্রতিক্রিয়ায়, সবাইকে উত্তর কোরিয়ার উপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা মেনে চলার আহ্বান জানান মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেন, ‘উত্তর কোরিয়ার উপর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখার প্রধান উদ্দেশ্য কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করা। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে উত্তর কোরীয় নেতার বৈঠকের পর সে লক্ষ্য অর্জনে বেশ অগ্রগতি হয়েছে। তবে এখনো অনেক কাজ বাকি। দুই নেতার পরবর্তী বৈঠক নিয়ে আলোচনা চলছে। সামনের দিনগুলোতে কোরীয় উপদ্বীপে স্থায়ী শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় সিউলের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ অব্যাহত আছে।’

এদিকে, চীনের প্রতি নরম-গরম নীতি চালিয়ে যাচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসন। একদিকে বাণিজ্য যুদ্ধ এড়াতে আলোচনা, অন্যদিকে দক্ষিণ চীন সাগরে সামরিক তৎপরতার পরিণতি সম্পর্কে চীনকে সতর্ক করে দিচ্ছে ওয়াশিংটন। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ১৫ বছরের মধ্যে চীনের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ বাধার আশঙ্কা রয়েছে-এমনটাই জানালেন ইউরোপে মোতায়েন মার্কিন সামরিক বাহিনীর প্রাক্তন প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল বেন হজেস। 

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow