Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০৯:৫৩ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ১২:১৬
মহাকাশ থেকে দেখতে কেমন ‘স্ট্যাচু অব ইউনিটি’?
অনলাইন ডেস্ক
মহাকাশ থেকে দেখতে কেমন ‘স্ট্যাচু অব ইউনিটি’?
সংগৃহীত ছবি

বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভারতের স্ট্যাচু অব ইউনিটি মহাকাশ থেকেও স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে৷ সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সংবাদ মাধ্যমে ছবিসহ এমনই তথ্য ঘুরছে৷ স্যাটেলাইট থেকে তোলা হয়েছে এই ছবি৷ গত ১৫ নভেম্বর 'অবলিক স্কাইস্যাট' এই স্ট্যাচু অব ইউনিটির স্পষ্ট ছবি ফ্রেমবন্দি করেছে। সেই ছবি 'প্লানেট ল্যাবস' ট্যুইটারে শেয়ার করে৷

সূত্রের খবর, স্যাটেলাইট থেকে তোলা সেই ছবি ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গেছে৷ উপগ্রহ থেকে পাঠানো ‘স্ট্যাচু অব ইউনিটি’র ছবি এই প্রথম প্রকাশ্যে এল। নর্মদা নদীর পাশে কেভাদিয়ায় তৈরি এই সৌধটিকে দেখা গেল একেবারে ‘টপ ভিউ’ থেকে। গুগল স্যাটেলাইট ম্যাপে এটির অবস্থান দেখা গেলেও এত সুস্পষ্ট ছবি প্রথম প্রকাশ্যে এল।

এই স্ট্যাচুর উচ্চতার ৫৯৭ ফুট৷ গত ৩১ অক্টোবর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এর উদ্বোধন করেন৷ উদ্বোধনের পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘‘রাষ্ট্রীয় একতা দিবস পালন করছে গোটা দেশ৷ দেশের প্রতিটি কোণে একতার জন্য যুবসমাজ দৌড়াচ্ছেন৷ রান ফর ইউনিটি৷ আজকের এই দিনটি দেশের কাছে স্মরণীয় দিন৷ এতদিন সর্দার প্যাটেলকে সেই যোগ্য সম্মান দেওয়া হয়নি৷ বর্তমান সরকার সেটা করে দেখিয়েছে এবং নতুন ইতিহাসও তৈরি করেছে৷ ভারত ভবিষ্যতে চলার পথে প্রেরণা পাবে৷ সর্দার প্যাটেলের মূর্তি দেশকে সমর্পণ করে ভালো লাগছে৷’’

আবেগপ্রবণ ভাষণে মোদি আরও বলেন, ‘‘যখন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলাম তখন ভাবিনি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে আমি এই মূর্তির উন্মোচন করব৷ পুরানো দিনের কথা মনে পড়ছে৷ দেশজুড়ে কৃষকদের কাছে জমি চাওয়া হয়েছিল৷ ক্ষেত খামারে ব্যবহৃত যন্ত্র চেয়েছিলাম৷ সকলে এগিয়ে এসে একে জনআন্দোলনে পরিণত করেন৷ বহু টন লোহার যন্ত্রে মূর্তির কাঠামো তৈরি হয়৷’’

উল্লেখ্য, গত ৩১ অক্টোবর ‘স্ট্যাচু অব ইউনিটি’ উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের ১৪৩তম জন্মবার্ষিকি উপলক্ষে তার এই সৌধ উন্মোচন করা হয়। এই সৌধটির ডিজাইন করেছেন পদ্মভূষণে সম্মানিত ভাষ্কর্যশিল্পী রাম সুতার। এই সৌধটি তৈরি করতে খরচ হয় প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow