Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০৯:০১ অনলাইন ভার্সন
খবর সিএনএন'র
দুর্ঘটনার পরও ‌সিটবেল্ট না বেঁধে গাড়ি চালালেন প্রিন্স ফিলিপ
অনলাইন ডেস্ক
দুর্ঘটনার পরও ‌সিটবেল্ট না বেঁধে গাড়ি চালালেন প্রিন্স ফিলিপ

দুর্ঘটনার পরও সিটবেল্ট না বেঁধে গাড়ি চালালেন ইংল্যান্ডের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ। রানির ব্যক্তিগত এস্টেট স্যানড্রিংঘ্যামে গত শনিবার সিটবেল্ট না বেঁধেই ল্যান্ডরোভার ফ্রিল্যান্ডার চালান ৯৭ বছরের ফিলিপ। সেজন্য পুলিশ তাকে সতর্কও করলেও ভ্রুক্ষেপ করেননি ডিউক অফ এডিনবরা। 

এদিকে, তার বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর জন্য গত বৃহস্পতিবার দুর্ঘটনায় পড়া অন্য গাড়ির আহত আরোহীদের কাছে ক্ষমাও চাননি ফিলিপ বলে অভিযোগ করেছে আহত যাত্রীরা। গতকাল রবিবার বিভিন্ন ব্রিটিশ সংবাদপত্রে সেই ছবি এবং খবর প্রকাশিত হতেই সমালোচনার ঝড় বইছে ইংল্যান্ডজুড়ে। 

পুলিশ সূত্রে খবর, গত বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের পূর্বাংশে নরফোকে দ্রুত গতিতে গাড়ি চালাচ্ছিলেন ফিলিপ। রাজবাড়ির বাগানবাড়ির কাছে তার ল্যান্ডরোভার আরেকটি গাড়িকে ধাক্কা মারলে দুটি গাড়িই উল্টে যায়। খবর পেয়ে তৎক্ষণাৎ পুলিশকর্মীরা গিয়ে ফিলিপকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। তিনি অক্ষত থাকলেও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন। 

অন্য গাড়িতে ছিলেন এমা ফেয়ারওয়েদার নামে এক যুবতী, তার নয় মাসের শিশু এবং এক বন্ধু। তাদেরও হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। ওই গাড়ির চালকের পায়ে গুরুতর চোট লাগে। এমা পরে পুলিশকে অভিযোগ করেন, দুর্ঘটনার মুহূর্তে তিনি দেখেছিলেন, ফিলিপের সিটবেল্ট বাঁধা ছিল না। সেসময়ই এব্যাপারে পুলিশ ফিলিপকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। এর পরে শনিবারও একইভাবে তাকে গাড়ি চালাতে দেখা গেলে সমালোচনা শুরু হয়েছে ইংল্যান্ডে।      


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর

আপনার মন্তব্য

up-arrow