Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০১:১০ অনলাইন ভার্সন
ট্যুইটারে ১ লাখ ফলোয়ার হারালেন মোদি!
অনলাইন ডেস্ক
ট্যুইটারে ১ লাখ ফলোয়ার হারালেন মোদি!
ফাইল ছবি

ভারতে শিগগিরই লোকসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেই উপলক্ষে প্রচারের মাধ্যম হিসাবে সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলি। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিজেপির মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে সবচেয়ে বেশি তত্পরতা ছিল। এই মুহূর্তে তা নিয়ে সচেতন হয়ে উঠেছে সবদলই। তাই আসন্ন নির্বাচনে সোশ্যাল মিডিয়া কতখানি প্রভাব ফেলতে পারে, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই হিসাব-নিকাশ শুরু হয়ে গিয়েছে।

এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ট্যুইটারে ১ লক্ষ ফলোয়ার হারালেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী হারিয়েছেন প্রায় ৯ হাজার ফলোয়ার। গত নভেম্বর মাসে ভুয়া প্রোফাইল ছেঁটে ফেলার কর্মসূচি নিয়েছিলেন ট্যুইটার কর্তৃপক্ষ। তার জেরেই একধাক্কায় এত সংখ্যক ফলোয়ার হারিয়েছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী।

এ ব্যাপারে সবচেয়ে এগিয়ে দিল্লির ইন্দ্রপ্রস্থ ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি। প্রধানমন্ত্রী, বিরোধী নেতা মিলিয়ে দেশের ৯২৫টি রাজনৈতিক হ্যান্ডল নিয়ে সম্প্রতি একটি গবেষণা চালায় তারা। তাতে দেখা গিয়েছে, নভেম্বরে ট্যুইটারে ভুয়া প্রোফাইল ছেঁটে ফেলা অভিযানে বহু সংখ্যক ফলোয়ার হারিয়েছেন ভারতীয় রাজনীতিকরা। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, সবচেয়ে বেশি ফলোয়ার হারিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ১ লক্ষ ফলোয়ার হারিয়েছেন তিনি। ভুয়া প্রোফাইল কাটছাঁটের পর রাহুল গাঁধী হারিয়েছেন ৮ হাজার ৭০০ ফলোয়ার। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীওয়াল এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ ফলোয়ার হারিয়েছেন যথাক্রমে ৪০ হাজার ৩০০ এবং ১৬ হাজার ৫০০ জন। এ ছাড়াও যাঁরা প্রচুর সংখ্যক ফলোয়ার হারিয়েছেন, সেই তালিকায় রয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী কিরণ রিজিজু, বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক ভূপেন্দ্র যাদব এবং সংসদের তথ্যপ্রযুক্তি কমিটির চেয়ারম্যান তথা বিজেপি সাংসদ অনুরাগ ঠাকুর।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow