Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:২৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২২:৩২
মোদির বিরুদ্ধে বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগ রাহুলের
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
মোদির বিরুদ্ধে বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগ রাহুলের

রাফাল যুদ্ধ বিমান বিতর্কে নতুন করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। 

মঙ্গলবার দিল্লিতে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ করেন তিনি। সেখানে বিমান প্রস্তুতকারী সংস্থা এয়ারবাসের এক কর্মচারীর ই-মেলের প্রতিলিপি দেখিয়ে রাহুল গান্ধী দাবি করেন, রাফাল চুক্তি হওয়ার আগেই ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেন ভারতীয় ব্যবসায়ী অনিল আম্বানী। 
সাংবাদিক সম্মেলনে রাহুলের দাবি, ২০১৫ সালে এপ্রিল মাসে ফ্রান্স সফর করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। ওই সফরেই ফ্রান্সের সরকারের সাথে ৩৬ টি রাফাল কেনা চুক্তি হয় ভারতের। আর তার ১৫ দিন আগেই প্যারিসে গিয়ে ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিন-ইভস লে দ্রিয়ানের দফতরে যান ভারতীয় ব্যবসায়ী অনিল আম্বানী। সেখানে লে দ্রিয়ানের পাশাপাশি সেদেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করে অনিল। ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে অনিল সেসময় জানান মোদির ফ্রান্স সফরকালেই রাফাল সম্পর্কিত এমওইউ (মেমোরান্ডাম অফ আন্ডারস্ট্যান্ডিং) স্বাক্ষর হবে। তার প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গেছে।’  
বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করার উচিত বলেও এদিন মন্তব্য করেছেন রাহুল। রাহুলের অভিমত ‘এটা অফিসের গোপনীয়তা ভঙ্গ ছাড়া কিছুই নয়। গাপনীয়তা রক্ষার শপথ নিয়ে মোদিজি প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। তিনি ছাড়া এই তথ্য অন্য কারও জানার কথা নয়। এমনকি ভারতের তৎকালীন প্রতিরক্ষামন্ত্রী, পররাষ্ট্র সচিব এবং হিন্দুস্তান অ্যারোনটিক্স লিমিটেড অবগত ছিলেন না।  এমওইউ স্বাক্ষরিত হওয়ার আগেই অনিল আম্বানী আগাম এই চুক্তির ব্যাপারে জেনে গেলেন। ওই বৈঠকের পরই অনিল আম্বানী নিজের সংস্থা খুলে ফেলেন। আসলে আমাদের প্রধানমন্ত্রী অনিল আম্বানীর মধ্যস্ততাকারী (দালাল) হিসাবে কাজ করেছেন। প্রথমত এটা দুর্নীতির বিষয়। এটা বিশ্বাসঘাতকতা ছাড়া কিছুই নয়। তিনি সরকারী গোপানীয়তা ভঙ্গ করেছেন। এটা অপরাধও বটে। এই বিষয়টিই প্রধানমন্ত্রীকে কারাগারে ঢোকাবে।’ রাহুলের অভিমত মোদি যা করেছেন তা সাধারণত একজন গুপ্তচর করে থাকেন।’
এদিকে রাহুল গান্ধীর অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ জানান রাহুল প্রতিযোগী যুদ্ধবিমান সংস্থার হয়ে কাজ করছেন।’ মন্ত্রীর প্রশ্ন এয়ারবাসের ই-মেল রাহুল কিভাবে পেলেন?’  

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

up-arrow