Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৩১
আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৯:৫৩

সান্ত্বনার বার্তা দিলেও ভারতের পাশে নেই চীন

অনলাইন ডেস্ক

সান্ত্বনার বার্তা দিলেও ভারতের পাশে নেই চীন
ফাইল ছবি

সান্ত্বনার বার্তা দিলেও ভারতের পাশে রইল না চীন। পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর, এই ঘটনার ‘ব্যাকবোন’ জইশ-ই-মোহম্মদকে ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন’ তকমা দেওয়ার যে জোরালো দাবি করেছে ভারত, তাতে সাড়া দিল না বেইজিং। 

চীনের বিদেশ মন্ত্রালয়ের তরফে জানানো হয়, সব ধরনের সন্ত্রাসবাদের কড়া সমালোচনা করছে চীন। সন্ত্রাস দমনে প্রতিবেশী সব দেশকে পাশে থাকারও বার্তা রাখা হচ্ছে। তবে জঙ্গিসংগঠনের নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, বেইজিংয়ের জবাব, এ বিষয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ১২৬৭ কমিটির স্পষ্ট কিছু শর্ত রয়েছে। আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠনের তালিকায় নাম রয়েছে জইশের। অত্যন্ত সাবধানতা এবং দায়িত্বের সঙ্গে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি পদক্ষেপ করবে চিন।

গতকাল শুক্রবার ক্যাবিনেটের নিরাপত্তা বিষয়ক কমিটির বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, কূটনৈতিক স্তরে সব রকম ভাবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে নয়া দিল্লি। জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গি সংগঠনকে নিষিদ্ধ করতে চেষ্টার ত্রুটি রাখা হবে না। পাশাপাশি, পাকিস্তানকে দেওয়া ‘সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত দেশ’ তকমা তুলে নিচ্ছে ভারত। অর্থাৎ পাকিস্তানের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করার চূড়ান্ত পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নিল মোদি সরকার। 

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ পুলওয়ামার অবন্তীপোরায় সিআরপিএফের সেনা কনভয়ে হামলা চালায় জঙ্গিরা। সেনা বাসে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ৪৪ সেনা নিহতের খবর মিলেছে। আহত অন্তত ৩৯ সেনা। এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি’ মাসুদ আজহারের ‘জইশ-ই-মোহম্মদ’ জঙ্গি সংগঠন। এই ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে আন্তর্জাতিক মহলেও।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর


আপনার মন্তব্য