Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১০:৫৭
আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৩:২১

শামীমাকে যা বুঝিয়ে সিরিয়ায় নিয়ে গিয়েছিল আইএস

অনলাইন ডেস্ক

শামীমাকে যা বুঝিয়ে সিরিয়ায় নিয়ে গিয়েছিল আইএস

২০১৫ সালে লন্ডন থেকে পালিয়ে আরও দুই সহপাঠীকে নিয়ে সিরিয়ায় গিয়ে ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দিয়েছিল সেই সময়কার ১৫ বছরের কিশোরী শামীমা বেগম। গত সপ্তাহে তুমুল লড়াইয়ের মধ্যে শামীমা বেগম আইএসের নিয়ন্ত্রণাধীন সর্বশেষ এলাকাটি থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি একটি শরণার্থী শিবিরে অবস্থান করছেন। আর তার স্বামী সিরিয় সেনাবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করে। সম্প্রতি একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন বর্তমানে ১৯ বছরের তরুণী শামীমা। সেখান থেকে রবিবার স্কাই নিউজকে একটি এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন তিনি। সেখানে তিনি কীভাবে আইএসে যোগ দিতে প্রলুব্ধ হয়েছিলেন তা জানিয়েছেন। সাক্ষাৎকারটি নেন সাংবাদিক জন স্পার্কস।

শামীমাকে প্রশ্ন করা হয় আইএসের কোন বিষয়টি আপনাকে আকর্ষণ করেছিল?

জবাবে শামীমা বলেন, তারা (আইএস) দেখিয়েছে যে আপনি সিরিয়া যেতে পারেন এবং তারা আপনার সকল বিষয়ে যত্ন নেবে। আপনি আপনার পরিবারে থাকবেন এবং কিছু করতে পারবেন। তাছাড়া, আপনি ইসলামিক আইনের অধীনে বসবাস করবেন।

সিরিয়ায় যাওয়ার আগে আপনি কি আইএসের কর্মকাণ্ড সম্পর্কে জানতেন? যেমন ধরুণ-মানুষকে শিরশ্ছেদ করা এবং মত্যুদণ্ড কার্যকর করা ইত্যাদি?

জবাবে শামীমা বলেন, হ্যাঁ, আমি ওই বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতাম। এবং আমি এ বিষয়ে একমত ছিলাম। কারণ, আপনি জানেন যে, আমি সিরিয়া যাওয়ার আগে ধার্মিক হয়ে উঠতে শুরু করেছিলাম। তাছাড়া, আমি শুনেছিলাম যে, ধর্মীয়ভাবে এসবের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

আপনি কি জানেন ব্রিটেনে আপনার ফেরার অনুমতি দেওয়া হবে কি হবে সেটা নিয়ে একটা অনিশ্চিত কাজ করছে?

জবাবে শামীমা বলেন, হ্যাঁ, আমি জানি।

এ বিষয়ে আপনার অনুভূতি কী?

শামীমা বলেন, আমি যা কিছু করেছি -এ বিষয়ে আমার প্রতি অনেকের সহানুভূতি থাকা উচিত। আমি আশাবাদী, আমার জন্য এবং আমার সন্তানের জন্য আমাকে ব্রিটেনে ফেরার অনুমতি দেওয়া হবে। কারণ আমি চিরদিনের জন্য এই ক্যাম্পে থাকতে পারি না। এটা সত্যিই সম্ভব না।

বিডি-প্রতিদিন/১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য