Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ২৪ জুন, ২০১৬ ০১:১৮
ব্রেক্সিটের পর ‘সুয়েক্সিট’, ‘জারেক্সিট’?
ব্রেক্সিটের পর ‘সুয়েক্সিট’, ‘জারেক্সিট’?

ব্রিটেন ইইউতে থাকবে কি না, তা নিয়ে গণভোট শেষ হয়েছে। আজও হয়তো ফলাফল জানা যাবে। আর এই গণভোটের ফলাফলের ওপর নির্ভর করছে পুরো ইউরোপীয় ইউনিয়নের অস্তিত্ব। কারণ ব্রিটেন যদি ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যায় তাহলে এর পর বেরিয়ে যেতে পারে সুইডেন ও জার্মানি। এ ধারণা দিয়েছেন ইউরোপের রাজনীতিকরা, বিশেষজ্ঞরা। সুইডেন যদি ইইউ থেকে বের হওয়ার জন্য গণভোটের আয়োজন করে তাহলে তার নাম হতে পারে ‘সুয়েক্সিট’। আর জার্মানি গণভোট দিলে তার নাম হতে পারে ‘জারেক্সিট’। এ বিষয়ে অনলাইন স্কাই নিউজ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তার শিরোনাম ‘আফটার ব্রেক্সিট, উড ইট বি সুয়েক্সিট অ্যান্ড জারেক্সট?’ আর এটা যদি হয় তাহলে দুর্ভোগ বয়ে আনবে পুরো ইউনিয়নটির ওপর। যদিও সুইডেনের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ চাইছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে থাকতে। কিন্তু ব্রিটেন যদি বেরিয়ে যায় তাহলে তার একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়বে সুইডেনে। কারণ, এ দেশটি ব্রিটেনের সঙ্গে প্রকৃতিগত মিত্র। দুটি  দেশই বহির্দৃষ্টি সম্পন্ন, ব্যবসায়বান্ধব। তাছাড়া তারা ব্রিটেনকে অনুসরণ করে। ইউরোপীয় ইউনিয়নে অভিন্ন মুদ্রা ইউরো হলেও ব্রিটেন তার নিজস্ব মুদ্রা পাউন্ড ব্যবহার করে। তাকে অনুসরণ করে সুইডেনও তার নিজস্ব মুদ্রা ক্রোনা ব্যবহার করে। অর্থাৎ দুটি দেশের একটিও ইউরো ব্যবহার করে না। ইউরোপীয় ইউনিয়নে ব্রিটেন যে পথ অনুসরণ করে সুইডেনও সেই পথে যায়। ইউরোপিয়ান অ্যাফেয়ার্স বিষয়কমন্ত্রী অ্যান লিন্ডেসহ সরকারের অনেক মন্ত্রী প্রকাশ্যে স্বীকার করেছেন, তারা এ বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন। ইউরোপীয় ইউনিয়নে যুক্তরাজ্যকে ধরে রাখার ক্ষেত্রে তারা যথাসম্ভব চেষ্টা করেছেন। মন্ত্রী অ্যান লিন্ডে বলেছেন, সুইডেনের মানুষ যা বলছেন আমার মনে হয় তা অব্যাহত রাখা খুব কঠিন হয়ে পড়বে। অর্থাৎ বেশির ভাগ সুইডিশ ইউরোপীয় ইউনিয়নে থাকার পক্ষে মত দিয়েছেন। তাদেও সেই ধারা ধরে রাখা কঠিন হবে। তিনি বলেন, ফ্রান্স ও জার্মানি বলেছে, যদি আপনি থাকতে চান থাকুন। যদি চলে যেতে চান তাহলে যেতে পারেন। এক্ষেত্রে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা ঐক্য ধরে রাখার চেষ্টা করতে পারেন। সুইডেন ডেমোক্রেটিক দলের ডানপন্থি এমপি পলা বিয়েলারের মতো অনেক এমপি মনে করেন, ব্রেক্সিটের ফলে সুয়েক্সিটের সৃষ্টি হতে পারে। একই ঘটনা ঘটতে পারে জার্মানির ক্ষেত্রেও। সেখানে এমন গণভোট হলে তার নাম হতে পারে ‘জারেক্সিট’। এএফপি।




up-arrow