Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ১১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৫৪
মার্কিনিদের ঐক্যবদ্ধ করতে ব্যর্থ ট্রাম্প ও হিলারি
হিস্পানিক ও মুসলমানদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে ট্রাম্প ইতিমধ্যে বিভেদ সৃষ্টিকারী হিসেবে চিহ্নিত

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক ও রিপাবলিকান দলের সম্ভাব্য দুই প্রার্থী মার্কিন জনগণকে এখনো ঐক্যবদ্ধ করতে সক্ষম হননি। বর্ণবাদ, সন্ত্রাস, সহিংসতা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র এখন অস্থির সময় পার করছে।

এমন অবস্থায় মার্কিন জনগণের দৃষ্টি যোগ্য নেতৃত্বের দিকে। সাধারণ জনগণের আকাঙ্ক্ষা এমন ব্যক্তি প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হবেন, যিনি সব ধরনের অস্থিরতা সামাল দিতে পারবেন। কিন্তু এই দুই নেতৃত্ব এখনো জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে টানা চার দিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বত্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। পুলিশের গুলিতে দুজন কৃষ্ণাঙ্গ নিহত হওয়ার পর থেকে প্রতিবাদ চলছে। কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার সঙ্গে যোগ হয়েছে ডালাস নগরীতে পাঁচ পুলিশ সদস্য হত্যার বিষয়টি। হিলারি কৃষ্ণাঙ্গদের কাছে জনপ্রিয়। তবে শক্ত হাতে দেশ পরিচালনা নিয়ে হিলারির প্রতি দলীয় সমর্থকদের আস্থার সংকট রয়েছে। হিস্পানিক, অভিবাসী ও মুসলমানদের নিয়ে বিতর্কিত কথাবার্তা বলে ট্রাম্প ইতিমধ্যে বিভেদ সৃষ্টিকারী হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন। উত্তেজনা ও অসন্তোষ দূর করার পরিবর্তে তিনি লাগামহীন মন্তব্য করে পরিস্থিতিকে আরও ঘোলাটে করে তুলছেন বলে মনে করা হচ্ছে। দলের লোকজনকে এক করে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করার কোনো দৃশ্যমান লক্ষণ তার মধ্যে দেখা যাচ্ছে না। কৃষ্ণাঙ্গ ও নাগরিক আন্দোলনের লোকজনের কাছে হিলারি জনপ্রিয় হলেও তাকে নিয়ে তার দলের সমর্থকদের মধ্যে একধরনের সন্দেহ কাজ করছে। ডালাসে পুলিশ হত্যার পর হিলারি পারস্পরিক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার কথা বলেছেন। ট্রাম্প বলেছেন, পুলিশের প্রতি সবার সম্মান দেখাতে হবে। ট্রাম্পের সমর্থক সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ফ্রেড ডিলুকা নিউইয়র্ক টাইমসকে বলেছেন, পুলিশ হত্যার পর ট্রাম্পের বক্তব্য শতভাগ খাঁটি, যদিও ট্রাম্পের অন্য সব মন্তব্য ও বক্তব্য জনগণকে উদ্বিগ্ন করার জন্য যথেষ্ট বলে মনে করেন তিনি। হিলারিকে কোনোভাবেই বিশ্বাস করা যায় না বলেও মন্তব্য সাবেক এই পুলিশ কর্মকর্তার।

up-arrow