Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১২ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৪৬
যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নাগরিকদের সতর্ক করল তিনটি দেশ
যুক্তরাষ্ট্র পরিস্থিতি

পুলিশের গুলিতে কয়েকজন কৃষ্ণাঙ্গ নিহত হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রে সৃষ্ট বিক্ষোভ-সহিংসতার মধ্যে দেশটিতে ভ্রমণের বিষয়ে নিজ নাগরিকদের সতর্ক করেছে বাহরাইন, বাহামা ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। সহিংসতা ও রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে থাকা  দেশগুলো ভ্রমণে নিজ নাগরিকদের সতর্ক করে নিয়মিত ভ্রমণ সতর্কতা জারি করে থাকে যুক্তরাষ্ট্র। এসব সতর্কতার মধ্যে ওই  দেশগুলোতে ভ্রমণ এড়িয়ে যেতে অথবা ভ্রমণের সময় সতর্ক থাকতে নাগরিকদের পরামর্শ দেয় দেশটি। এবার যুক্তরাষ্ট্র নিজেই বিদেশি সরকারদের ভ্রমণ সতর্কতা জারির কারণ হলো। দেশটির লুইজিয়ানা ও মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যে পুলিশের গুলিতে দুই কৃষ্ণাঙ্গ তরুণ নিহত হওয়ার পর দেশজুড়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভ চলছে। এতে কোথাও কোথাও সহিংসতার ঘটনাও ঘটছে। টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ডালাসে এ রকম এক প্রতিবাদ বিক্ষোভ চলার সময় বৃহস্পতিবার এক কৃষ্ণাঙ্গ বন্দুকধারীর গুলিতে পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তা নিহত ও সাতজন আহত হন। এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মধ্যপ্রাচ্যের ছোট দ্বীপরাষ্ট্র বাহরাইন যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণরত নিজ নাগরিকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে। শনিবার এক ট্যুইটার বার্তায় দেশটি তার নাগরিকদের ‘যুক্তরাষ্ট্রে যেসব প্রতিবাদ চলছে এবং যেখানে লোক সমাগম ঘটছে’ সেসব জায়গাগুলো এড়িয়ে চলার ও সেগুলোর বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে। অপরদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাত যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা জানানোর ভাষা প্রায় অনুসরণ করে যুক্তরাষ্ট্রে থাকা নিজ দেশের শিক্ষার্থী ও অন্য নাগরিকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে।

মার্কিন নাগরিকত্বের জন্য রেকর্ডসংখ্যক আবেদন: যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসীদের মধ্যে হঠাৎ করে নাগরিকত্ব গ্রহণের আবেদনপত্র জমা দেওয়ার হিড়িক পড়েছে।

অভিবাসীদের মধ্যে যারা নাগরিকত্ব গ্রহণের উপযুক্ত, তারা বিষয়টি নিয়ে আর দেরি করছেন না। আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন, রাজনীতিতে প্রচণ্ড অভিবাসনবিরোধিতাকে এর কারণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে। নানা সংশয়, শঙ্কা নিয়ে অভিবাসীদের মধ্য দ্রুত মার্কিন নাগরিকত্ব গ্রহণের তাড়া সৃষ্টি হয়েছে। গত অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া অভিবাসন বছরের প্রথম তিন মাসে নাগরিকত্বের জন্য আড়াই লাখ আবেদনপত্র জমা পড়েছে। পিউ রিসার্চ সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, নাগরিকত্ব গ্রহণের আবেদন এর মধ্যে গত চার বছরের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।

‘বড় হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন’  ডালাসের হত্যাকারী : যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস শহরে গুলিতে পাঁচ পুলিশকে হত্যা ও সাতজনকে আহতকারী ব্যক্তি আরও বড় ধরনের হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন বলে জানিয়েছে শহরটির পুলিশ প্রধান।

পুলিশের বরাতে বিবিসি বলছে, শ্বেতাঙ্গ পুলিশের গুলিতে কৃষ্ণাঙ্গ তরুণদের মৃত্যুর সাম্প্রতিক ঘটনায় ক্ষুব্ধ ছিলেন ২৫ বছর বয়সী কৃষ্ণাঙ্গ মিকাহ জনসন। তাই তিনি শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তাদের হত্যা করতে চেয়েছিলেন। ডালাসের পুলিশ প্রধান ডেভিড ব্রাউন জানিয়েছেন, জনসনের বিস্তৃত পরিকল্পনার বিষয়ে তিনি ‘নিশ্চিত’ হয়েছেন। সিএনএনকে তিনি জানিয়েছেন, সামরিক বাহিনীর সাবেক সদস্য জনসন বিস্ফোরকের বিস্ফোরণ ঘটানোর অনুশীলন করছিলেন এমন ধারণা পাওয়া গেছে।   তিনি আরও জানান, পুলিশের দূরনিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরকে জনসন যেখানে নিহত হয়েছেন সেখানে তিনি নিজের রক্তে ইংরেজি ‘আর’ ও ‘বি’ অক্ষর দুটি লিখে রেখে গেছেন। পুলিশ এর তাত্পর্য বোঝার চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এছাড়া জনসনের বাড়িতে পাওয়া একটি সাময়িকী পুলিশ কর্মকর্তারা পড়ে দেখছেন কিন্তু তার ‘অর্থোদ্ধার করা শক্ত’ বলে জানিয়েছেন তিনি। ব্রাউন আরও জানান, বৃহস্পতিবার হামলা চলার সময় পুলিশের সঙ্গে জনসনের দুই ঘণ্টা ধরে মধ্যস্থতার সময় হামলাকারী জনসন পুলিশকে বিদ্রুপ করেছে।  

ডালাসে বিক্ষোভ চলার সময় জনসন পুলিশের ওপর স্নাইপার বন্দুক দিয়ে হামলা চালান। এএফপি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow