Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩১ আগস্ট, ২০১৬ ২৩:০৩
টাটার জন্য সিঙ্গুরের জমি অধিগ্রহণ অবৈধ
কলকাতা প্রতিনিধি

সিঙ্গুরে ২০০৬ সালে টাটা কোম্পানি তাদের কারখানার জন্য যে জমি অধিগ্রহণ করেছিল তা অবৈধ ঘোষণা করল সুপ্রিমকোর্ট। গতকাল ভারতের শীর্ষ আদালতের বিচারপতি গোপাল গৌড়া এবং অরুণ মিশ্রের ডিভিশন বেঞ্চ সিঙ্গুরের জমি অধিগ্রহণকে অবৈধ ঘোষণা করে। একই সঙ্গে আগামী ১২ সপ্তাহের মধ্যে সব ইচ্ছুক ও অনিচ্ছুক কৃৃষককে জমি ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। প্রসঙ্গত, ২০০৬ সালে সিঙ্গুরে টাটার ছোট গাড়ি (ন্যানো) কারখানার জন্য ৯৯৭ একর জমি অধিগ্রহণ করেছিল তৎকালীন বামফ্রন্ট সরকার। অধিগ্রহণের বিরোধিতায় আন্দোলনের ঝড় তুলেছিল তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। পরে সেই আন্দোলনকে হাতিয়ার করেই রাজ্যের ক্ষমতায় আসেন মমতা। ২০১১ সালে ক্ষমতায় এসেই সিঙ্গুরের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য বিধানসভায় ‘জমি পুনর্বাসন ও উন্নয়ন আইন-২০১১’ পাস করিয়ে নেয় তৃণমূল সরকার। কিন্তু রাজ্য সরকারের সেই আইনের বিরোধিতা করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় টাটারা। সিঙ্গল বেঞ্চে টাটাদের হার হলেও ডিভিশন বেঞ্চে জয় হয় তাদের। এরপর ২০০৮ সালে সুপ্রিমকোর্টে যায় রাজ্য সরকার। এরপর দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর অবশেষে অবসান হলো সিঙ্গুর জটিলতার। আদালত জানিয়েছে জমির প্রকৃত মালিকদের চিহ্নিত করে তাদের জমি ফিরিয়ে দিতে হবে। ক্ষতিপূরণ বাবদ যারা ইতিমধ্যেই রুপি নিয়েছেন তাদের সেই ক্ষতিপূরণের অর্থ ফেরত দিতে হবে না পাশাপাশি তাদের জমিও ফিরিয়ে দিতে হবে।

up-arrow