Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০২
সিরিয়ায় ত্রাণবহরে বিমান হামলা
সিরিয়ায় ত্রাণবহরে বিমান হামলা

সিরিয়ার আলেপ্পো শহরের কাছে ত্রাণবাহীবহরে বিমান হামলা হয়েছে। সোমবারের এ হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সিরিয়ায় রুশ-মার্কিন সমঝোতায় সপ্তাহ কালের যুদ্ধবিরতি শেষ বলে সিরীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ঘোষণা আসার কয়েক ঘণ্টার মাথায় বিমান হামলার ঘটনা ঘটল। ত্রাণবহরে হামলার কথা স্বীকার করেছে জাতিসংঘ। তবে কে বা কারা এ হামলা চালিয়েছে, তা জানায়নি সংস্থাটি।   জাতিসংঘের এক মুখপাত্র বলেছেন, কমপক্ষে ১৮ থেকে ৩১টি ত্রাণবাহী ট্রাক হামলার শিকার হয়েছে। তবে তা বিমান হামলা কি না, নিশ্চিত নয়। ত্রাণবহরে কথিত বিমান হামলাকে ‘নির্মম আচরণ’ বলে অভিহিত করেছেন জাতিসংঘের ওই মুখপাত্র। যুক্তরাজ্যভিত্তিক পর্যবেক্ষক গোষ্ঠী সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটসের ভাষ্য, সিরিয়া বা রাশিয়ার যুদ্ধবিমানই এই হামলা চালিয়েছে। অবজারভেটরি বলছে, যুদ্ধবিরতি শেষ হওয়ার পর আলেপ্পো ও তার আশপাশে অন্তত ৩৫টি বিমান হামলা হয়েছে। গোষ্ঠীটি বলছে, বিমান হামলায় সাহায্যকর্মী, ট্রাকচালকসহ ২০ জন নিহত হয়েছে। বিমান হামলার অভিযোগের বিষয়ে সিরীয় সরকারের কাছ থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

ত্রাণ বিতরণ স্থগিতের ঘোষণা জাতিসংঘের : ত্রাণবাহী বহরে হামলার ঘটনায় সিরিয়ায় সব ধরনের ত্রাণ বিতরণ স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে জাতিসংঘ। হামলার একদিনের মাথায় এ ঘোষণা দেওয়া হলো। জাতিসংঘের এক কর্মকর্তা জানান, ঠিক যে মুহূর্তে সার্বিক পরিস্থিতি মূল্যায়ন করা হচ্ছিল সে মুহূর্তেই হামলার ঘটনা ঘটল। সোমবার রাতে আলেপ্পোর বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত একটি এলাকার কাছে হামলার ঘটনার শিকার হয় ত্রাণবাহী গাড়িবহর। বহরে অন্তত ৭৮ হাজার মানুষের জীবন রক্ষাকারী প্রয়োজনীয় পণ্য ছিল। এদিকে হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে জাতিসংঘ ও মার্কিনযুক্তরাষ্ট্র। বিবিসি, আলজাজিরা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow