Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩৯
পাকিস্তানে নদীর পানি বন্ধ করে দিচ্ছে ভারত
কলকাতা প্রতিনিধি

কাশ্মীরের উরিতে সেনা দফতরে জঙ্গি হামলার পর পাকিস্তানের ওপর চটেছে ভারত। এ হামলা যে পাকিস্তান থেকে হয়েছে সেই অভিযোগ বার বার করে আসছে ভারত। এজন্য গত কয়েক দিন ধরেই পাকিস্তানের প্রতি একের পর এক বার্তা দিচ্ছে। এর মধ্যেই গতকাল সিন্ধু-চুক্তি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আলোচনা শেষে বললেন, ‘রক্ত এবং পানি একসঙ্গে বইতে পারে না।’  বৈঠকের একটি সূত্র জানায়, পাকিস্তানকে অতিরিক্ত পানি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। ১৯৬০ সালে পাকিস্তানের সঙ্গে হওয়া সিন্ধু চুক্তির বিষয়টি পর্যালোচনা করতে গতকাল দিল্লিতে এক শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ওই চুক্তি অনুযায়ী ভারতের পশ্চিম দিকের তিনটি নদীর পানি এখনো পর্যন্ত পাকিস্তান ব্যবহার করে। ওই নদীগুলো হলো—সিন্ধু, চেনাব এবং বিতস্তা (ঝিলম)। আর অপেক্ষাকৃত পূর্ব দিকের তিন নদী বিপাশা, রবি ও শতদ্রুর পানি ব্যবহার করে ভারত। কিন্তু, উরি-কাণ্ডের পরে পরিস্থিতি পাল্টেছে। সূত্রের খবর, এবার ওই ছয় নদীর পানির বেশির ভাগই ভারত ব্যবহার করতে চাইছে। পূর্ব দিকের নদীগুলো ভারতের কৃষি অঞ্চলের চাহিদা মেটাতে পারছে না। তাই বাকি তিন নদীর পানি বেশির ভাগই ব্যবহার করার যুক্তি দেওয়া হয়েছে। সূত্র জানায়, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ  নেওয়ার ইতিবাচক ও নেতিবাচক দিকগুলো নিয়ে আলোচনা করতে চাইছেন নরেন্দ্র মোদি। আর এরই মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ হিসেবে ইন্দুস পানি চুক্তি নিয়ে আরেকবার  ভেবে দেখবে ভারত। ভারত হয়ে পাকিস্তানে প্রবেশ করা ইন্দুস নদী পাকিস্তানের বড় একটি অংশে প্রবাহিত হচ্ছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow