Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৩৬
রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা স্থগিত করল যুক্তরাষ্ট্র
সিরিয়া শান্তি প্রক্রিয়া
রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা স্থগিত করল যুক্তরাষ্ট্র
সিরিয়া। চারদিকে যুদ্ধের দামামা। এতটুকু শান্তির পরশ পাওয়া যেখানে দুষ্কর সেখানে প্রতি মুহূর্তে আকাশ থেকে ধেয়ে আসছে বোমা। যাতে ক্ষতবিক্ষত হয় সভ্যতা, মারা যায় নিরীহ মানুষ। সেই সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ঘৌতা এলাকার হাজেতে শিশু শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ সরবরাহ করেছে ইউনিসেফ। স্কুলব্যাগ পেয়ে আনন্দের সীমা নেই এই খুদে শিক্ষার্থীদের— এএফপি

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্লাটিনিয়াম চুক্তি বাতিল করছে গত পরশু। আর গতকাল যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়া বিষয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যে চুক্তি তা স্থগিত করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ, সিরিয়াতে সব পক্ষের যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে রাশিয়া গত মাসে চুক্তিতে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তা পালন করছি না। পুতিন তার বন্ধু, বাশার আল আসাদের সরকারকে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করার ব্যাপারে যথেষ্ট চাপ দেয়নি। আর এ জন্যই সিরিয়ায় রাশিয়ার বিমান হামলায় অনেক মানুষ মারা যাচ্ছে। যাদের বেশির ভাগই বেসরকারি মানুষ। সিরিয়াতে বেসামরিক নাগরিক হতাহতের জন্য রাশিয়া ও সিরিয়ার সরকার উভয়কেই দায়ী করছে যুক্তরাষ্ট্র। হাসপাতাল ও মানবিক সাহায্যের বহরে হামলার জন্যেও তাদের দায়ী করা হচ্ছে। সিরিয়া সম্পর্কিত সব আলোচনা স্থগিত করার ঘোষণা দিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র যশ আর্নেস্ট বলেছেন, রাশিয়ার ব্যাপারে সবার ধৈর্যচ্যুতি ঘটেছে। আর্নেস্ট বলেছেন, রাশিয়া বেশ কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়ে সেগুলো নিজেরাই পূরণ করেনি। তারা বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে। আর্নেস্ট আরও বলেছেন সিরিয়াতে আইএসকে প্রতিহত করতে হস্তক্ষেপ শুরু করার পর থেকে তাদের বিরুদ্ধে তেমন কোনো অগ্রগতি অর্জন করেনি রাশিয়া। অন্যদিকে রাশিয়া এ সিদ্ধান্তকে দুঃখজনক বলে উল্লেখ করে উল্টো শর্ত ভঙ্গের জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করছে। রাশিয়া বলছে যুক্তরাষ্ট্র নিজের ব্যর্থতা অন্যের ঘাড়ে চাপাতে চাইছে। আলোচনা বন্ধের এ ঘোষণার পর সিরিয়াতে রাজনৈতিকভাবে একটি সমাধানের আপাতত আর কোনো আশা রইল না। সোমবারও আলেপ্পোর সবচাইতে বড় হাসপাতালটিতে এক সপ্তাহে তৃতীয়বারের মতো হামলা হয়েছে। সোমবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্লাটিনিয়াম নিষ্ক্রিয়করণ চুক্তি স্থগিত করেন। এতে স্নায়ুযুদ্ধ যুগের দুই বৈরী দেশের সম্পর্ক আগের খারাপ পর্যায়ের দিকে চলে গেল।

রাশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের হামলার আশঙ্কা: সিরিয়া ইস্যু নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র এবং রাশিয়ার মধ্যে চলমান উত্তেজনা আরও বেড়েছে। যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার ওপর হামলা চালাতে পারে এমন আশঙ্কায় দেশটির কর্মকর্তা এবং গণমাধ্যমকে সতর্ক করেছে কর্তৃপক্ষ। ব্রিটেনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি স্টারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। আর এ কারণে গতকাল থেকে চার দিনের নাগরিক প্রতিরক্ষা মহড়া শুরু করেছে রাশিয়া। দেশটির প্রায় ৪ কোটির বেশি মানুষ অর্থাৎ এক-তৃতীয়াংশ এই মহড়ায় অংশ নিচ্ছে। গত সপ্তাহে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেলের এক খবরে জানানো হয়, রাশিয়ায় আক্রমণের জন্য পরমাণু অস্ত্র প্রস্তুত করছে যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের তরফে বলা হয়েছে, রাশিয়া নজিরবিহীনভাবে ভয়াবহ পরমাণু অস্ত্রশক্তির প্রয়োগ করতে পারে। এএফপি, বিবিসি।

up-arrow