Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২২:৫৫
অভিবাসীবিরোধী নতুন নীতি ঘোষণা ব্রিটেনের
অভিবাসীবিরোধী নতুন নীতি ঘোষণা ব্রিটেনের

অভিবাসন নিয়ে নতুন নীতি ঘোষণা করেছে ব্রিটেন। তবে এই নীতি অভিবাসনবিরোধী দমন নীতি বলে বলছেন বিশ্লেষকেরা।

নতুন এই নীতির প্রভাব পড়বে বিদেশি পেশাদারদের ওপর। ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাইরে থেকে বিদেশি পেশাদার ব্রিটেনে নিয়োগের ক্ষেত্রে ব্রিটিশ কোম্পানিগুলো এতে কঠিন অবস্থার মুখোমুখি হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এ নীতি বলা হয়েছে, ২০১৭ সাল থেকে অভিবাসীরা যাতে প্রয়োজনীয় সেবা না পায় তা নিশ্চিত করতে নিয়মিত ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে ব্রিটিশ ব্যাংকগুলোকে।

বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রিটিশ সরকারের এ নীতি বাস্তবায়ন হলে তাতে দুর্ভোগে পড়বে ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত নয় এমন সব দেশ। ক্ষমতাসীন দলের বার্ষিক সম্মেলনে বার্মিংহামে ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাম্বার রাড এ নীতির পক্ষে কথা বলেন। তিনি বলেন, অভিবাসীর সংখ্যা কমিয়ে আনতে তিনি বিভিন্ন রকম উপায় খুঁজছেন। এক্ষেত্রে একটি কৌশল হলো ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছেড়ে আসা। তিনি বলেন, আমরা যদি ব্যবসার কথা বোঝাতে চাই তাহলে সব উেসর দিকে আমাদের দেখতে হবে। আমাদের ‘ওয়ার্ক অ্যান্ড স্টাডি রুটের’ দিকে তাকাতে হবে। কোম্পানিগুলো বিদেশ থেকে লোকবল আমদানি করবে কিনা সে বিষয়েও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। তিনি বলেন, ব্রিটিশ কোম্পানির জন্য এ নীতি হলো একটি পরীক্ষা। এ পরীক্ষায় দেখতে হবে বাইরে থেকে মানুষ এসে ব্রিটেনের শ্রম বাজারে শূন্যতা পূরণ করছে। এখন দেখতে হবে তা ব্রিটিশরাই করতে পারে কিনা।

up-arrow