Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৫২
পশ্চিম তীরে আরও তিন হাজার বসতি নির্মাণ করবে ইসরায়েল
পশ্চিম তীরে আরও তিন হাজার বসতি নির্মাণ করবে ইসরায়েল
পশ্চিম তীরের জুদিয়া-সামারিয়ায় নতুন করে আরও তিন হাজার বাড়ি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসরায়েল

অধিকৃত পশ্চিম তীরে আরও তিন হাজার নতুন বাড়ি বানানোর ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথ নেওয়ার দুই সপ্তাহের মধ্যে মঙ্গলবার ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ‘প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাভিগডর লিবারম্যান ও প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু জুদিয়া-সামারিয়া এলাকায় নতুন করে আরও তিন হাজার বাড়ি নির্মাণের অনুমোদন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ২০ জানুয়ারি ট্রাম্পের শপথ নেওয়ার পর অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমে ৫৬০ ও পশ্চিম তীর ২ হাজার ৫২টি নতুন বাড়ি নির্মাণের বিষয়টি অনুমোদন দিয়েছে ইসরায়েল। তেলআবিবের এই নতুন বসতি নির্মাণ ঘোষণার বিষয়ে নীরব থেকে হোয়াইট হাউস বুঝিয়ে দিয়েছে তারা এ বিষয়ে ওবামা প্রশাসনের নীতি থেকে সরে এসেছে। ইসরায়েলকে শক্তভাবে সমর্থন দেওয়ার ঘোষণার সুবাদে নেতানিয়াহু দ্রুত একের পর এক বসতি নির্মাণের ঘোষণা দিয়ে যাচ্ছেন। গত সপ্তাহে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমরা বসতি নির্মাণ করছি এবং এটি অব্যাহত রাখব। ’

এদিকে ফিলিস্তিনিরা পশ্চিম তীর এবং গাজা উপত্যকা নিয়ে স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবি জানিয়ে আসছে। যে রাষ্ট্রের রাজধানী হবে পূর্ব জেরুজালেম। এ দাবির মুখে আন্তর্জাতিক চাপের পরিপ্রেক্ষিতে ২০০৫ সালে গাজা থেকে ইসরায়েলি সেনা এবং সেটলারদের প্রত্যাহার করা হয়। বিশ্বের বেশির ভাগ দেশই মনে করে  ইসরায়েলের এ ধরনের বসতি নির্মাণ সম্পূর্ণ অবৈধ এবং ইসরায়েল-ফিলিস্তিন শান্তির অন্যতম অন্তরায়। কিন্তু ইসরায়েল বরাবরই ধর্মীয় ও ঐতিহাসিক এবং রাজনৈতিক সম্পর্কের অজুহাতে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড জবর দখল করে আছে। অপরদিকে ১৫ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনে ট্রাম্পের সঙ্গে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বৈঠকের কথা রয়েছে। ওই বৈঠকে তারা অধিকৃত এলাকায় বসতি নির্মাণ নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন ট্রাম্পের শীর্ষ এক মুখপাত্র। বিবিসি, আলজাজিরা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow