Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩০
এসআইপিআরআই সমীক্ষা
সবচেয়ে বেশি অস্ত্র কেনে ভারত
সবচেয়ে বেশি অস্ত্র কেনে ভারত

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় অস্ত্র আমদানিকারী দেশ এখন ভারত। অস্ত্র মজুদের প্রতিযোগিতায় মধ্য প্রাচ্যের ধনকুবের দেশগুলোকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থানে দেশটি।

স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (এসআইপিআরআই) এক সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে আসে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১২ থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে পৃথিবীতে মোট যে পরিমাণ অস্ত্র বিক্রি হয়েছে, তার ১৩ শতাংশ কিনেছে ভারত। ২০০৭ থেকে ২০১১ সালের মধ্যে এই হার ছিল ৯.৭ শতাংশ। শেষ পাঁচ বছরের অস্ত্র আমদানির হিসাব বলছে, তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে সৌদি আরব, তৃতীয় আরব আমিরাত, চতুর্থ চীন এবং পঞ্চম স্থানে আলজেরিয়া। তবে দ্বিতীয় স্থানে থাকা সৌদি আরবের সঙ্গে প্রথম স্থানে থাকা ভারতের ব্যবধান অনেক। ভারত যেখানে ১৩ শতাংশ সেখানে সৌদি ৮.২ শতাংশ অস্ত্র কিনেছি। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ইয়েমেন এবং সিরিয়াতে যে যুদ্ধ চলছে, মধ্য এশিয়ার অধিকাংশ দেশই সেই যুদ্ধে অংশ নিয়েছে। শুধু তাই নয়, ইরানের সঙ্গেও এই দেশগুলোর সম্পর্ক বেশ উত্তপ্ত। তাই অস্ত্রের চাহিদা সেখানে বেড়েছে। গত পাঁচ বছরে নিজেদের অস্ত্র আমদানির পরিমাণ ২১২ শতাংশ বাড়িয়েছে সৌদি আরব। কিন্তু তাতেও আমদানির নিরিখে তারা ভারতের চেয়ে অনেকটা পিছিয়ে। ভারতের এই বিপুল পরিমাণ অস্ত্র কেনার কারণও ব্যাখ্যা করা হয়েছে এসআইপিআরআই রিপোর্টে। চীন এবং পাকিস্তানের মতো দুই পরমাণু শক্তিধর প্রতিবেশীর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতার কারণেই ভারতকে অস্ত্র আমদানিতে জোর দিতে হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারতীয় সেনাবাহিনীর আধুনিকীকরণে ২৫ হাজার কোটি ডলার খরচের পরিকল্পনা নিয়েছেন। ফ্রান্স থেকে রাফাল ফাইটার জেট, রাশিয়া  থেকে সুখোই ফাইটারের আধুনিকতম ইঞ্জিন, ইসরায়েল থেকে বেশ কিছু ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র, রাডার এবং অত্যাধুনিক ড্রোনসহ নানা সামরিক সরঞ্জাম কেনার প্রক্রিয়া চলছে।

up-arrow