Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৩০
ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা
হাওয়াইয়ের পর আরও চার রাজ্যে চ্যালেঞ্জ
হাওয়াইয়ের পর আরও চার রাজ্যে চ্যালেঞ্জ

হাওয়াইয়ের পর এবার আরও চারটি রাজ্যে আইনি চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণসংক্রান্ত ডোনাল্ড ট্রাম্পের নতুন নির্বাহী আদেশ। গত বুধবার ট্রাম্পের নতুন নির্বাহী আদেশের বিরুদ্ধে মামলা করে হাওয়াই ফেডারেল সরকার।

এবার এর সঙ্গে যুক্ত হলো নিউইয়র্ক, ওয়াশিংটন, অরেগন এবং ম্যাসাচুসেটস এ চারটি রাজ্য।

সোমবার ৬টি মুসলিম দেশ থেকে ৯০ দিনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করে নতুন নির্বাহী আদেশ জারি করেন ট্রাম্প। নতুন আদেশে ইরাককে বাদ দেওয়া হয়। ১৬ মার্চ থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। আর ঠিক এর আগের দিনই নির্বাহী আদেশের বিরুদ্ধে করা হাওয়াই রাজ্যের করা মামলার শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। তবে এবার এই ইস্যুতে আদালতে জয়ের ব্যাপারে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে হোয়াইট হাউস। গত মঙ্গলবার হাওয়াইয়ের অ্যাটর্নি জেনারেল ডগলাস চিন ট্রাম্পের নতুন নির্বাহী আদেশকে সংবিধান পরিপন্থি উল্লেখ করে নিষেধাজ্ঞার ওপর সাময়িক স্থগিতাদেশ চান। এর পরদিন বুধবার হাওয়াই ডিস্ট্রিক্ট কোর্টের বিচারক ড্যারিক ওয়াটসন এ বিষয়ে শুনানির নির্দেশ দেন। এক বিবৃতিতে ডগলাস বলেন, ‘এ নিষেধাজ্ঞার ফলে হাওয়াইসহ পুরো যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী হাজারো মানুষ তাদের স্বজনদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বেন।

তাদের স্বজনরা যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণ করতে পারবেন না। এটা যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান পরিপন্থি। ’

গত ৬ মার্চ এক নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করে নতুন নিষেধাজ্ঞা জারি করেন ট্রাম্প। এতে বলা হয় ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান, সিরিয়া ও ইয়েমেনের যেসব নাগরিকদের বৈধ ভিসা নেই, তারা আগামী ৯০ দিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবে না। সেইসঙ্গে সিরীয় শরণার্থীদের গ্রহণ ১২০ দিনের জন্য স্থগিত থাকবে। এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি এক নির্বাহী আদেশে ওই ছয়টি দেশ ছাড়া ইরাককেও তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল। তবে নির্বাহী আদেশ জারির এক সপ্তাহর মধ্যেই এটিকে ফেডারেল কোর্ট অবৈধ বলে বাতিল করে দেন। বিবিসি

এই পাতার আরো খবর
up-arrow