Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:৫২
সিরিয়া হাতছাড়া হচ্ছে আমেরিকার?
ইদলিবে বিমান হামলা শুরু করেছে রুশ বাহিনী
bd-pratidin

সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ইদলিব প্রদেশে ব্যাপক সামরিক অভিযান শুরু করছে আসাদ বাহিনী। আর এর পেছন থেকে পুরো সহযোগিতা দিচ্ছে রাশিয়া। আর এই সামরিক অভিযান এড়াতে জোরালো কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা। পাশাপাশি আগামীকাল সিরিয়ার ভবিষ্যৎ নিয়ে তেহরানে মিলিত হচ্ছেন রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরানের প্রেসিডেন্টরা। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে উত্খাত করতে সেখানে একাধিক বিদ্রোহী গোষ্ঠী তৈরি করে আমেরিকা। এরপর এদের সামরিক ও আর্থিক সহায়তা দিয়ে আসছে। কিন্তু এই পরিকল্পনায় বাদ সেধেছে রাশিয়া ও ইরান। ২০১১ সালে সিরিয়ায় দাঙ্গা শুরু হওয়ার পর দেশটির বিশাল অংশ বিদ্রোহীদের দখলে চলে যায়। কিন্তু বর্তমানে তার অনেকটা অংশই প্রেসিডেন্ট আসাদের বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে। বিদ্রোহীদের দখলে রয়ে গেছে মূলত ইদলিব। এর পতন ঘটলে সিরিয়ায় আসাদের কর্তৃত্ব জোরদার হবে বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে। সেই লক্ষ্যে সমরসজ্জাও শুরু হয়েছে। রুশ বোমারু বিমান সেখানে কিছু হামলাও চালিয়েছে। বিদ্রোহীরা প্রতিরোধ করলে মারাত্মক সংঘাত ও তার ফলে মানবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ অবস্থায় শান্তিপূর্ণ সমাধানের উদ্দেশ্যে ইরানের রাজধানী তেহরানে আগামীকাল রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রোহানির সঙ্গে আলোচনায় বসবেন। এদিকে আমেরিকা সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশে রাসায়নিক হামলা হলে ওয়াশিংটন ও তার মিত্ররা ‘তাত্ক্ষণিকভাবে’ তার জবাব দেবে। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ইদলিব মুক্ত করা সম্ভব হলে সন্ত্রাসীদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক আমেরিকার পক্ষে আর সিরিয়া নিয়ে রাজনীতি করার সুযোগ থাকবে না। বিবিসি

এই পাতার আরো খবর
up-arrow