Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫৮
টাইফুনের পর জাপানে ভয়াবহ ভূমিকম্প
টাইফুনের পর জাপানে ভয়াবহ ভূমিকম্প
bd-pratidin

একের পর এক প্রাকৃতিক দুর্যোগের হানায় বিপর্যস্ত জাপান। ২৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুন জেবিতে তছনছ হওয়ার পর এবার দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ হোক্কাইডোতে ৬.৭ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে।

গতকাল রাত ৩টার দিকে এ ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে বেশ কিছু বাড়িঘর মাটিচাপা পড়ে কমপক্ষে ৩০ জন নিখোঁজ বলে জাপানের সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়। হোক্কাইডোর সাপ্পোরোতেও লোকজনের আঘাত পাওয়ার খবর সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত হয়। কাছাকাছি এলাকায় অবস্থিত তামারি পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রের সম্ভাব্য ক্ষতি হওয়া নিয়ে উদ্বেগ দেখা দেয়। পারমাণবিক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিদ্যুেকন্দ্রের ১ ও ৩ নম্বর চুল্লির ব্যবহৃত জ্বালানির শীতলীকরণ প্রক্রিয়া চলতে থাকা অবস্থায় বাইরে থেকে আসা একটি বিদ্যুৎ-সংযোগের ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যায়। তবে কোনো বিপর্যয় ঘটেনি। বিদ্যুেকন্দ্রের চারপাশে তেজষ্ক্রিয়তার মাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এনএইচকে জানিয়েছে, ভূমিকম্পের পর ১২০ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। ভূমিকম্পের পর থেকে হোক্কাইডোর প্রায় ৩০ লাখ বাড়িতে বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। সব ধরনের ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে; বন্ধ রয়েছে দ্রুতগামী ট্রেন এবং প্রায় সব ধরনের সাধারণ পরিবহন। হোক্কাইডোতে ১৯৯৬ সালের পর এটিই সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। এ ভূমিকম্পের মাত্র এক দিন আগে সুপার টাইফুন জেবির তাণ্ডবে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ ওসাকা ও কিয়েতোতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়; নিহত হন ১১ জন। আর গত মাসে দেশটিতে ব্যাপক বন্যায় শতাধিক মানুষ নিহত হয়।

গতকাল সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে বলেছেন, ‘এটি সত্যি মর্মান্তিক দুর্যোগ। আমরা একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছি। ইতিমধ্যে প্রায় ২৫ হাজার সৈন্য আহতদের উদ্ধারে তৎপরতা শুরু করেছে। ঝুঁকি এড়াতে জনসাধারণকে আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে অবস্থান করতে বলা হয়েছে।’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow