Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:১৬
ভারতে কংগ্রেসের ডাকা হরতালে মিশ্র প্রভাব
কলকাতা প্রতিনিধি
bd-pratidin

পেট্রোপণ্যের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ভারতে গতকাল কংগ্রেসের ডাকা ১২ ঘণ্টার বনেধ মিশ্র সাড়া দেখা গেছে। কংগ্রেসের দাবি তাদের এই হরতালকে সমর্থন জানিয়েছে সিপিআইএম, মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা (এমএনএস), ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি), বহুজন সমাজ পার্টি (বিএসপি), রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি), জনতা দল (সেকুলার) সহ ২১টি বিরোধী দল ও বণিকসভা সংগঠন। পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস জানিয়ে দিয়েছিল যে তার দল জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদকে সমর্থন জানালেও ভারত বন্ধ পালন করা সম্ভব নয়। তাছাড়া রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি নিজেও এই ধরনের হরতালের বিরোধী। মমতার নির্দেশ অনুযায়ী এদিন সকাল থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় হরতাল রুখতে রাস্তায় নামে পুলিশ। বিজেপি শাসিত গুজরাট, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, হরিয়ানা, আসামসহ অন্যান্য রাজ্যগুলোতেও হরতালের তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি। তবে গুজরাটের ভারুচে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানায় হরতাল সমর্থনকারীরা। এসময় বেশ কিছু সময় ধরে যান চলাচলে ব্যাপক প্রভাব পড়ে।

ঝাড়খন্ডে রেল লাইনের মধ্যেই টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে রেল অবরোধে শামিল হয় আরজেডি-এর সমর্থকরা।  কংগ্রেস শাসিত কর্নাটক রাজ্যে বাস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে, কিছু জায়গায় টায়ারে আগুন দিয়ে সড়ক অবরোধ করা হয়। রাজ্যটির প্রতিটি স্কুল, কলেজেই আগাম ছুটি ঘোষণা করে কর্নাটক রাজ্য সরকার। জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে দিল্লির রাজঘাটে একটি প্রতিবাদী মিছিলে অংশ নেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। রাজঘাট থেকে সেই মিছিল যায় দিল্লির রামলীলা ময়দানে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow