Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৩০
চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিটের প্রস্তুতি নিচ্ছে ইইউ

ব্রেক্সিটের পর আয়ারল্যান্ড সীমান্ত ও ভবিষ্যৎ বাণিজ্য সম্পর্ক কেমন হবে, তা নিয়ে মতৈক্যে পৌঁছাতে পারছে না ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাজ্য। সেক্ষেত্রে শেষ পর্যন্ত চুক্তি না হলে কীভাবে এগিয়ে যাওয়া যাবে সে প্রস্তুতিও নিচ্ছে ইইউ। আবার ব্রিটিশ কনজারভেটিভ পার্টির জ্যেষ্ঠ নেতারা মনে করেন, চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট কার্যকর করলে তা যুক্তরাজ্যের ভৌগোলিক অখণ্ডতাকে হুমকির মুখে ফেলবে। সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ব্রেক্সিট নিয়ে তেরেসা মের সমর্থন খুবই কমে গেছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

গত বৃহস্পতিবার সেখানে তেরেসা মের অনুপস্থিতিতেই ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তার পরিকল্পনা সফল হবে না। মূল সমস্যা হয়ে দেখা দিয়েছে ইইউ সদস্য রাষ্ট্র আয়ারল্যান্ড ও যুক্তরাজ্যের নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড অংশের মধ্যে বাণিজ্যের শর্ত নির্ধারণ নিয়ে। আইরিশ সীমান্তের বিষয়ে ইইউয়ের পরামর্শ হচ্ছে : নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড ইউরোপীয় বাজারের অংশ হিসেবে থাকবে। আর বাকি যুক্তরাজ্য ইইউ থেকে আলাদা হয়ে যাবে। কিন্তু ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে তাদের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, এই সিদ্ধান্ত অর্থনৈতিকভাবে এবং সাংবিধানিকভাবে যুক্তরাজ্যকে বিভক্ত করে ফেলবে। এদিকে আগামী অক্টোবর মাসেই ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের সভা। সেখানে যদি চূড়ান্ত ব্রেক্সিট পরিকল্পনা উপস্থাপন করা না যায় তাহলে এ বিষয়ে আগামী নভেম্বরে বিশেষ বৈঠক ডাকাটাও সম্ভব হবে না। সেক্ষেত্রে আগামী ২৯ মার্চের মধ্যে ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার যে সিদ্ধান্ত তেরেসা মে নিয়েছেন তা বাস্তবায়নে চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট কার্যকর করতে হবে, যা ‘নো ডিল-ব্রেক্সিট’ নামে আখ্যায়িত হচ্ছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow