Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:৪৩
অ ন্য খ ব র
সাগরে ভেসে ৪৯ দিন
সাগরে ভেসে ৪৯ দিন

ইন্দোনেশিয়াতে গভীর সাগরে নোঙর করে কাঠের তৈরি ভেলায় বাতি জ্বালিয়ে রাতে মাছ ধরার চল রয়েছে বহুদিন ধরে। ইন্দোনেশিয়ায় এ ধরনের ভেলাকে বলা হয় রমপং। প্রতি সপ্তাহে ওই ভেলায় প্রয়োজনীয় খাবার, পানি এবং জ্বালানি সরবরাহ করা হয়। একই সঙ্গে ডাঙ্গায় নিয়ে যাওয়া হয় শিকার করা মাছ। রোদ-বৃষ্টি থেকে বাঁচার জন্য ভেলার ওপর ছাউনি দেওয়া একটি কুঁড়ে ঘর বানানো থাকে ওই ভেলায়। জুলাই মাসের মাঝামাঝি তেমনি একটি রমপংয়ে মাছ ধরছিল ইন্দোনেশিয়ার সুলাওসি দ্বীপের ১৯ বছরের তরুণ আলদি নোভেল আদিলাং। কিন্তু ১৪ জুলাই এক ঝড়ে তার ওই ভেলার নোঙর ছিঁড়ে গেলে চরম বিপদে পড়ে যায় এই তরুণ। গভীর সাগরে নিয়ন্ত্রণহীনভাবে ভাসতে থাকে তার মাছ ধরার ওই ভেলা। ভাসতে ভাসতে কয়েক হাজার কিলোমিটার দূরে চলে যায় আদিলাংয়ের ওই ভেলা। ৪৯ দিন পর গুয়াম দ্বীপের কাছে পানামার একটি পণ্যবাহী জাহাজ তাকে উদ্ধার করে।

কীভাবে বেঁচে ছিল আদিলাং : এই ৪৯ দিন আদিলাং কীভাবে বেঁচে ছিল— জাকার্তা পোস্ট পত্রিকাকে তা বলেছেন ইন্দোনেশীয় কূটনীতিক ফাজার ফিরদৌস। ভেলার ওপর কুঁড়েঘরের কাঠ ভেঙে ভেঙে তা দিয়ে সাগরের মাছ ধরে সেদ্ধ করে খেয়েছেন সে। বিবিসি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow