Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৬ মে, ২০১৮ ২২:৩৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৭ মে, ২০১৮ ০৮:২০
মসজিদে নববীতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইফতার আয়োজন
মোহাম্মদ আল-আমীন, সৌদি আরব
মসজিদে নববীতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইফতার আয়োজন

ইসলামের দৃষ্টিতে মর্যাদার দিক দিয়ে পবিত্র নগরী মক্কার পরই মদিনার স্থান। এই মদিনাতেই মাত্র ১১ হাজার ৬ শত বর্গফুটের একটি মসজিদ নির্মাণ করেছিলেন বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)। কালের পরিক্রমায় সেই মসজিদ এখন ১৭ লাখ স্কয়ার ফুটের এক বিশাল কমপ্লেক্সে পরিণত হয়েছে। এই মসজিদে সাধারণ সময়ে একসঙ্গে ৬ লাখ লোক নামাজ আদায় করতে সক্ষম, হজ এবং ঈদের সময় যা কোটি ছাড়িয়ে যায়। 

এখানেই প্রতি রমজানে আয়োজিত হয় বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইফতার মাহফিল। রমজানের মাসব্যাপী এ আয়োজনে প্রতিদিন অংশ নেন ৩ থেকে ৫ লাখ নারী-পুরুষ। বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ধর্মপ্রাণ মানুষ অংশগ্রহণ করেন এই ইফতার মাহফিলে।

ইফতারির আয়োজনে মসজিদের ভিতরে থাকে খেজুর, বন রুটি, টক দই, জমজমের পানি, চা, কফি ও গাহওয়া। ইফতািরির আইটেমের ক্ষেত্রে মসজিদের ভিতর বাধ্য-বাধকতা থাকলেও মসজিদের বাহিরের চত্বরে আয়োজনের কোনো বাধা ধরা নিয়ম নেই। ফলে আয়োজকদের মধ্যে এক অলিখিত প্রতিযোগিতা চলে কে কার চেয়ে বেশি আয়োজন করবেন। এখানে আইটেমের মধ্যে থাকে খেজুর, বিভিন্ন প্রকারের শরবত ও জুস, লাবাং, টক দই, বিভিন্ন প্রকারের ফল, বিরিয়ানী, রোস্ট, মুরগী পোলাও, বন রুটি প্রভৃতি। 

এছাড়াও, বিভিন্ন দেশের নাগরিকগণ তাদের পছন্দ ও চাহিদার আলোকে খাবার নিয়ে হাজির হন এই মাহফিলে।

মসজিদ এলাকায় পরিচ্ছন্নতার দায়িত্বে নিয়োজিত একটি কোম্পানির কর্মকর্তার সাথে আলাপকালে জানা যায়, রমজানের এই সময়ে পরিচ্ছন্ন কাজে নিয়োগ করা হয় অতিরিক্ত প্রায় ১০ হাজার পরিচ্ছন্ন কর্মী।

হিজরী ক্যালেন্ডারের পবিত্র মাস রমজান। এ মাসেই নাজিল হয়েছিল পবিত্র কোরআন। রমজানকে কেন্দ্র করে ইফতারির মূহুর্তে ভাতৃত্ব ও ভালবাসার এক অনন্য নিদর্শন দেখা যায় ইফতার মাহফিলগুলোতে। 

বিডি প্রতিদিন/২৬ মে ২০১৮/এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

up-arrow