Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৩:০২ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
বাংলাদেশে ভাষা দিবসের উন্মাদনা অনেক বেশি: ব্রাত্য বসু
দীপক দেবনাথ, কলকাতা:
বাংলাদেশে ভাষা দিবসের উন্মাদনা অনেক বেশি: ব্রাত্য বসু

ভাষা দিবসে বাংলাদেশে যে উন্মাদনা, যে আবেগ তা এপার বাংলার (পশ্চিমবঙ্গ) চেয়ে অনেক বেশি বলেই মনে করেন বিশিষ্ট নাট্যব্যক্তিত্ব ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

তার মতে এর প্রধান কারণ বাংলাদেশে ভাষাকে কেন্দ্র করে মানুষ প্রাণ দিয়েছেন।

ভাষার ওপর ভিত্তি করেই বাংলাদেশ নামে একটা রাষ্ট্র তৈরি হয়েছে। এটা একটা ঐতিহাসিক ব্যাপার। স্বাভাবিক ভাবেই উন্মাদনাও অনেক বেশি থাকবে। তবে আমাদের এখানেও উন্মাদনা আছে, আবেগ আছে। আমার মনে এই দুইটার মধ্যে তুলনা চলে না’।

মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক ভাষা দিবসে কলকাতার বরানগরে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে একটি নবনির্মীত স্থায়ী শহীদ মিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে ব্রাত্য বসু একথা বলেন। ২০১৫ সালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জির সফর সঙ্গী হয়েছিলেন রাজ্যটির তৎকালীন পর্যটন মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ২১ ফেব্রুয়ারির রাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাও জানান তিনি। সেই প্রসঙ্গ তুলেই ব্রাত্য বসু বলেন সেদিনকার অনুভূতিটাই আলাদা, কোনদিন ভোলা যাবে না।

যেভাবে কাতারে কাতারে মানুষ একটা ফুল নিয়ে খালি পায়ে শহিদ মিনারের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তা আমার কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে’।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বরানগরের ঘোষপাড়া-যাদব চন্দ্র ঘোষ লেন ও বিটি রোড সংযোগস্থলে এই শহীদ মিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্রাত্য বসু ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট লেখক ও বাংলাদেশের ভাষা গবেষক গোলাম কুদ্দুছ, সাহিত্যিক সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়, তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়, স্থানীয় বিধায়ক তাপস রায় প্রমুখ।

বিডি প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

up-arrow