Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:৪০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:৪৪
কলকাতায় মাঝ আকাশে সংঘর্ষ থেকে বাঁচল ২ বিমান, রক্ষা পেল ২০০
তদন্তের নির্দেশ
অনলাইন ডেস্ক
কলকাতায় মাঝ আকাশে সংঘর্ষ থেকে বাঁচল ২ বিমান, রক্ষা পেল ২০০
ফাইল ছবি

ঘটনাটি গত ডিসেম্বরের। কলকাতার মাঝ আকাশে আর একটু হলেই ইন্ডিগো ও সিল্ক এয়ারের দু'টি বিমানের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ বেঁধে যাচ্ছিল।

তবে ভাগ্যের জোরে সেদিন অল্পের জন্য রক্ষা পায় ২০০ প্রাণ। কীভাবে সেই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল, এবার তা খতিয়ে দেখতে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। খবর এই সময়ের।

খবরে বলা হয়েছে, গত ১১ ডিসেম্বর কলকাতা থেকে হায়দরাবাদের দিকে রওনা দিয়েছিল ইন্ডিগোর ভিটি-আইইএম বিমানটি। একই সময় সিঙ্গাপুর থেকে ভায়া কলকাতাগামী সিল্ক এয়ারের নাইন ভিএমজিএইচ বিমানটি অবতরণ করতে যাচ্ছিল। ঠিক সেই সময়ই এক চুলের জন্য সংঘর্ষ হওয়া থেকে বেঁচে যায় দু'টি বিমান। যাত্রী ও ক্রু মিলিয়ে দু'টি বিমানে ছিলেন ২০০ জন। তবে, যাত্রী ঠিক কতজন ছিল, তা জানায়নি কোনও কর্তৃপক্ষ।

বেসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রণালয়ের এই গুরুতর ঘটনাটি নজরে আনার পর এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে দেশটির এয়ারক্র্যাফ্ট অ্যাক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো।

দু'টি বিমানের পারস্পরিক দূরত্ব যতটা থাকা উচিত তার থেকে কম দূরত্বের আওতায় চলে আসাতেই দুর্ঘটনার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছি বলে মেনে নিলেও, ইন্ডিগোর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তাদের পাইলটের কোন দোষ ছিল না। এটিসি তত্‍‌পর থাকলে এই পরিস্থিতিই তৈরি হত না বলে অভিযোগ ইন্ডিগোর। অন্যদিকে সিল্কএয়ারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তাদের পাইলট যখন জানতে পারে একই রানওয়েতে ইন্ডিগোর বিমান টেক-অফ করছে, তখন তিনি তার লোকেশন নির্ধারণ করতে পারেননি।


বিডি-প্রতিদিন/২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow