Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৮ মে, ২০১৭ ২২:১৫
আপডেট :
এক মঞ্চে প্রণব-মমতা
দীপক দেবনাথ, কলকাতা:
এক মঞ্চে প্রণব-মমতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মমতা ব্যানার্জিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি।

বৃহস্পতিবার বিকালে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার সোনারপুরে ইন্ডিয়ান ইন্সিটিউট অফ লিভার অ্যান্ড ডাইজেস্টিভ সায়েন্সেস (আইআইএলডিএস)-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে রাজ্য জুড়ে মমতার উদ্যোগে যে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ হচ্ছে তার সাধুবাদ জানান রাষ্ট্রপতি।

সাম্প্রতিক কালে পশ্চিমবঙ্গের কয়েকটি হাসপাতালে চিকিৎসায় গাফিলতি, অহেতুক বিল বাড়িয়ে দেখানো সহ যে একাধিক অভিযোগ উঠেছে সেই প্রসঙ্গে রাষ্ট্রপতি বলেন ‘পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে চিকিৎসার পরিবর্তে সেবা বিক্রি করার অভিযোগ আসতেই মমতা হাসপাতাল, চিকিৎসক সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে সমাধান করার চেষ্টা করছেন। শিক্ষা, স্বাস্থ্য সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তিনি (মমতা) অনেক কাজ করছেন’।
রাষ্ট্রপতি আরও বলেন ‘আমি পশ্চিমবঙ্গের মানুষ, এখানেই গত পঞ্চাশ বছর ধরে রাজনীতি করেছি কিন্তু রাষ্ট্রপতি হবার পর আমি একাধিকবার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে রাজ্যে এসেছি এবং সেই অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী আমার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন। কাজেই আমি ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতায় উপলব্ধি করেছি যে কি দ্রুততার সঙ্গে এখানে কাজ হচ্ছে এবং কাজ এগোচ্ছে। তাই ওর (মমতা) থেকে বয়সে অনেক বড় হিসাবে আমি তাঁকে আশীর্বাদ করতে পারি যে তুমি মহান কাজে এগিয়ে যাও, ঈশ্বর তোমাকে সাহায্য করবেন, ভগবান তোমাকে সাহায্য করবেন’।

এদিনের অনুষ্ঠান থেকে মমতার সুরে সুর মিলিয়ে চিকিৎসকদের আরও মানবিক হওয়ার পরামর্শ দেন ভারতীয় রাষ্ট্রপতি। তিনি বলেন ‘ইংরেতি একটা কথা আছে সেটা হল ‘এ স্মাইলিং ফেস ক্যান কিওর হাফ অফ দ্য ডিজিস’। ডাক্তার যখন হাসিমুখে রোগীর সেবা করেন, তখন তার মুখের হাসিটাই রোগীর অর্ধেক যন্ত্রনা কমিয়ে দেয়, এটা বাস্তব সত্য। কারণ তখন রোগীরাও চিকিৎসকের ওপর (ঈশ্বরের মতো) আস্থা রাখেন যে তিনি সুস্থ হয়ে ফিরে আসবেন। ’
তবে রোগী মৃত্যুর পর হাসপাতালে ভাঙচুড়ের ঘটনায় রোগী এবং তাদের পরিবারের মানুষদেরও সংযত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন ‘চিকিৎসা বিজ্ঞান যতই আধুনিক পর্যায়ে পৌঁছাক না কেন, বিজ্ঞান এখনও পর্যন্ত মৃত মানুষকে বাঁচিয়ে তোলার গ্যারান্টি দিতে পারেনি। তাই রোগীকেও এই বিষয়টি মনে রাখতে হবে’।
আগামী জুলাইতে দেশটির রাষ্ট্রপতি নির্বাচন, তাই তার আগে মমতাকে রাষ্ট্রপতির এই প্রশংসা অনেক জল্পনা বাড়িয়ে দিল মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। কারণ দেশটির রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী পক্ষের পক্ষ থেকে সর্বসম্মত প্রার্থী ঠিক করতে মঙ্গলবারই দিল্লিতে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা। বৈঠকের পর বাইরে এসে নাম নিয়ে মমতা মুখ না খুললেও ওই বৈঠকে রাষ্ট্রপতি হিসাবে মমতা দ্বিতীয় বারের জন্য প্রণব মুখার্জির নাম প্রস্তাব করেন। কংগ্রেসেরও একটি পক্ষ প্রণবেই আস্থা রাখছেন। যদিও সব দলের তরফে সর্বসম্মত না হলে প্রণব মুখার্জি প্রার্থী হবেন না বলে আগেই জানিয়েছেন। সোনিয়ার পাশাপাশি কেজরিওয়ালের সঙ্গেও দেখা করেন মমতা। এরপর বৃহস্পতিবার দুপুরে দিল্লি থেকে প্রণব মুখার্জির সঙ্গে একই বিমানে কলকাতায় আসেন মমতা।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow