Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১১ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০৪ অনলাইন ভার্সন
অাসামের জাতীয় নাগরিক পঞ্জি নিয়ে বিদ্বজনেদের উদ্বেগ প্রকাশ
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
অাসামের জাতীয় নাগরিক পঞ্জি নিয়ে বিদ্বজনেদের উদ্বেগ প্রকাশ

অাসামে প্রকাশিত জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) ইস্যুতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন কলকাতার বুদ্ধিজীবীরা। শুক্রবার বিকালে কলকাতা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এই নাগরিক পঞ্জির কঠোর বিরোধিতা করা হয়।

বিরোধিতা করেন- কবি সুবোধ সরকার, চিত্রশিল্পী শুভাপ্রসন্ন, সাহিত্যিক আবুল বাশার, ইতিহাসবিদ নৃসিংহপ্রসাদ ভাদুড়ি, সঙ্গীতশিল্পী প্রতুল মুখোপাধ্যায় প্রমুখ। তাদের সকলেরই একমত জাতীয় নাগরিকপঞ্জি করে ভারতের ভয়ের বাতাবরণ তৈরি করা হচ্ছে। 

বিশিষ্ট নাট্যকার বিভাস চক্রবর্তী প্রশ্ন তুলে বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ভারতে থাকার পরেও কেন দেশের নাগরিকদের ভয় দেখানো হবে। তাদের তাড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হবে? এটা যে বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে, সঠিক উপায়ে করা হচ্ছে তার নিশ্চিত কোথায়? তাছাড়া যারা করছেন তারাই বা কতটা দক্ষ, অভিজ্ঞ তা জানতে হবে।

তার অভিমত 'মনে হচ্ছে আগুন নিয়ে খেলা হচ্ছে। এটা ডোনাল্ড ট্রাম্প করতে পারেন কিংবা হিটলার করতে পারেন। কিন্তু ভারতে এটা করতে দেবো, নাকি হতে দেবো না? এটাই প্রশ্ন।'

মোদিকে উদ্দেশ্যে করে সুবোধ সরকার বলেন, গুজরাটে তিনি গণহত্যা শুরু করেছিলেন..অাসামের এটা গণহত্যা নয় কিন্তু ৪০ লাখ মানুষের হৃদয়কে হত্যার সামিল। তাদের সকলকেই প্রতিটি রাত দুর্বিষহ জীবনযাপন করতে হচ্ছে কারণ সকাল হলেই হয়তো সরকারের লোক এসে বলতে বেরিয়ে যাও। 

ভারতের সুপ্রিমকোর্টকে সামনে রেখে নাগরিক পঞ্জির নামে যে ভয়ঙ্কর অবস্থা তৈরি করে দেওয়া হয়েছে-এটা পশ্চিমবঙ্গ কোনদিন মানেনি এবং ভবিষ্যতেও কোন দিন মানবে না।

সাহিত্যিক আবুল বাশার বলেন, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হলেন সততা ও সমন্বয়ের প্রতীক। তিনিই ভারতকে সমন্বয়ের পথ দেখাবেন। মমতাই সহিষ্ণুতার শিক্ষা দেবেন। রাতারাতি কোন দেশের মানুষ নাগরিকত্ব হারাতে পারে না।

এনআরসি খসড়া তালিকা থেকে বাদ পড়ার মানুষের পাশে দাঁড়াতে প্রয়োজনে অাসামে যাবেন বলেও জানান তিনি।

গত ৩০ জুলাই অাসামে প্রকাশিত হয় জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) চূড়ান্ত খসড়া তালিকা। এনআরসি’এর কাছে জমা পড়া ৩.২৯ কোটি আবেদনকারীর মধ্যে চূড়ান্ত খসড়া তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে ২.৮৯ কোটির কিছু মানুষের নাম। তালিকা থেকে বাদ পড়ে প্রায় ৪০ লাখ বাসিন্দা। এরপরই বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। 

বিডি প্রতিদিন/১০ আগস্ট ২০১৮/আরাফাত

আপনার মন্তব্য

up-arrow