Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১০:৪৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৪:০৮
শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে গৃহবধূর সঙ্গে পরকীয়া, অতঃপর...
অনলাইন ডেস্ক
শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে গৃহবধূর সঙ্গে পরকীয়া, অতঃপর...
প্রতীকী ছবি

মাঝে মধ্যে সময় পেলেই স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে চলে যান জামাই প্রশান্ত দলুই। এটা স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছিল শ্বশুরবাড়ির লোকজন। কিন্তু গোপনে যে তিনি প্রতিবেশী এক গৃহবধূর সঙ্গে 'পরকীয়া' সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন জামাই তা লক্ষ্য করেনি কেউই। কিন্তু এবার হাতেনাতে ধরা পড়ে গেলেন জামাই। আর তারপরই জামাইকে ধরে বিয়ে দিয়ে দেওয়া হল সেই গৃহবধূর সঙ্গে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরের এই ঘটনা ঘিরে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গেছে।

জি নিউজের খবর, শ্বশুরবাড়িতে যাতায়াতের সুবাদে ওই পাড়ার-ই এক গৃহবধূর সঙ্গে আলাপ হয় প্রশান্তের। ধীরে ধীরে দুজনের মধ্যে যোগাযোগ বাড়ে। ওই গৃহবধূর সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন প্রশান্ত। অভিযোগ, মাঝে মাঝেই শ্বশুরবাড়ি এসে ভোরবেলা নয়তো সন্ধ্যাবেলা সবার অলক্ষ্যে ওই গৃহবধূর সঙ্গে দেখা করতেন প্রশান্ত। এদিকে, প্রশান্ত দলুইয়ের স্ত্রী, ছেলে নিয়ে সংসার রয়েছে। অন্যদিকে, ওই গৃহবধূরও স্বামী, দুই সন্তান নিয়ে সংসার রয়েছে।  

শুক্রবারও ওই গৃহবধূর সঙ্গে গোপন স্থানে দেখা করতেও যান জামাই প্রশান্ত। আর তখনই যুগলকে হাতেনাতে ধরে ফেলে গ্রামবাসী। এরপরই গ্রামে একটি সালিশি সভা ডাকা হয়। আর সেই সভায় ওই গৃহবধূর সঙ্গে জামাইকে বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তারপরই যুগলকে স্থানীয় একটি মন্দিরে নিয়ে গিয়ে বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয়।

বিডি-প্রতিদিন/০৫ নভেম্বর, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow