Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ৭ নভেম্বর, ২০১৮ ১১:৫৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৭ নভেম্বর, ২০১৮ ১২:০১
পূজায় মদ বিক্রিতে সর্বকালীন রেকর্ড!
অনলাইন ডেস্ক
পূজায় মদ বিক্রিতে সর্বকালীন রেকর্ড!

এবার ওপার বাংলায় দুর্গাপূজা ভালই কেটেছে। অন্তত রাজ্যের আবগারি দফতরের হিসেব তেমনই। পূজার  মাসে সরকার ১২৭৫ কোটি টাকার মদ বিক্রি করেছে। আবগারি দফতর তৈরি হওয়ার পর কোনও এক মাসে এত রাজস্ব নাকি আগে কখনও আসেনি। তাই খুশি সরকার। আর রাজ্যবাসী যে খুশি মনেই পূজার সময় দেদার মদ খেয়েছে তাও মনে করছেন আবগারি কর্তারা।

তবে এখানেই শেষ নয়। মা দুর্গার ভক্তদের সঙ্গে এ বার মা কালীর ভক্তদের লড়াই শুরু হয়েছে! আবগারি কর্তাদের আশা, অক্টোবরে পূজার  মাসে এসেছে ১২৭৫ কোটি। নভেম্বরে আছে কালীপূজা, ভাইফোঁটা এবং ছট। ফলে মদের বাজার চড়াই থাকবে।

শুধু দেখার, মা দুর্গাকে হারিয়ে মা কালীর ভক্তরা নভেম্বর মাসে ১২৭৫ কোটির বেশি আবগারি রাজস্বের জোগান দিতে পারেন কি না। তাতে নবান্নের ভাঁড়ার উপচে পড়বে। মেলা, খেলা, উৎসবে কোনও ভাটার টান থাকবে না বলেই মত প্রশাসনিক কর্তাদের একাংশের।

আবগারি দফতর সূত্রের খবর,  মদের পাইকারি ব্যবসা সরকার হাতে নেওয়ার পর রাজস্ব বেড়েই চলেছে। পশ্চিমবঙ্গ বেভারেজ কর্পোরেশনকে অনেকেই তাই সরকারের লক্ষ্মীর ঝাঁপি বলতে শুরু করেছেন। কর্পোরেশন তৈরি হওয়ার পর মাসে গড়ে ৯০০ থেকে ৯৫০ কোটি টাকার মদ বিক্রি হচ্ছে। আবগারি কর্তাদের আশা ছিল, পূজার মাসে রাজস্ব হাজার কোটি ছাড়াবে। কারণ, অক্টোবরে শুধু মাত্র দুর্গাপূজাই ছিল। অতীত অভিজ্ঞতায় আবগারি কর্তারা দেখেছেন, যে বছর একই মাসে দুর্গা এবং কালীপূজা হয়, সেই মাসে রেকর্ড মদ বিক্রি হয়ে থাকে। তবে কর্তাদের যাবতীয় হিসেব-নিকেশ বদলে দিয়ে এক মাসেই ১২৭৫ কোটির টাকা মদ বিক্রিতে রীতিমতো চমকে গিয়েছেন কর্তারা। এক কর্তার আক্ষেপ, ‘‘পাঁচ দিন ব্যাঙ্ক বন্ধ না থাকলে হয়তো এবার ১৫০০ কোটির মদ বিক্রি হয়ে যেত। অবশ্য যা হয়েছে তা সর্বকালীন রেকর্ড।’’সূত্র: আনন্দবাজার

বিডি-প্রতিদিন/আবুল কালাম

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow