Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৪:০২ অনলাইন ভার্সন
বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত বেকার হোস্টেল পরিদর্শন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর
দীপক দেবনাথ, কলকাতা
বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত বেকার হোস্টেল পরিদর্শন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর

কলকাতার তালাতলার বেকার হোস্টেল পরিদর্শন করলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে. এম. খালিদ এমপি। রবিবার সকাল ১১টায় ৮ নং স্মিথ লেন-এ অবস্থিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি বিজড়িত বেকার হোস্টেল পরিদর্শনে আসেন প্রতিমন্ত্রী। সাথে ছিলেন কলকাতায় বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকশিনার তৌফিক হাসান, কাউন্সেলর বিএম জামাল হোসেন, কাউন্সেলর মনসুর আহমেদ, প্রথম সচিব (প্রেস) মোফাকখারুল ইকবালসহ দূতাবাসের কর্মকর্তারা।

বেকার হোস্টেলের তিনতলায় বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ মূর্তিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধার্ঘ জানান সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী। বেকার হোস্টেলের যে ২৪ নম্বর কক্ষে বঙ্গবন্ধু থাকতেন সেই ঘরটিও ঘুরে দেখেন তারা।

পরে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী জানান, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত জায়গা সবসময়ই আমাদের ছুঁয়ে যায়। যেভাবে কলকাতায় জীবন কাটিয়েছেন, পড়াশোনা করেছেন, বিশেষ করে দাঙ্গার সময় তিনি যেভাবে মানুষকে সাহায্য করেছেন-এই জায়গায় দাঁড়িয়ে সেই পুরোনো দিনের কথা মনে পড়ে যাচ্ছে।

বঙ্গবন্ধুর সেই স্মৃতি বিজড়িত বেকার হোস্টেলকে সংরক্ষণ ও আরও উন্নত করা যায় সে ব্যাপারেও বাংলাদেশ সরকার চিন্তাভাবনা করছে বলেও জানান তিনি। এ ব্যাপারে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের শিক্ষামন্ত্রীর সাথে আলোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

উল্লেখ্য ১৯৪৫-৪৬ শিক্ষাবর্ষে বর্তমানে মৌলানা আজাদ কলেজ (পূর্বতন ইসলামিয়া কলেজ)-এ লেখাপড়া করতেন। এসময় বেকার হোস্টেলের ২৪ নম্বর কক্ষে থাকতেন। ১৯৯৮ সালে পশ্চিমবঙ্গের তৎকালীন বামফ্রন্ট সরকারের উচ্চশিক্ষা বিভাগ ২৪ ও পাশের ২৩ নম্বর কক্ষ দুইটিকে এক করে তাকে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি হিসাবে সংরক্ষণ করে। এই স্মৃতি কক্ষে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর ছবি, তার ব্যবহৃত বই, চেয়ার-টেবিল, খাট, আলমারি। ওই কক্ষের প্রবেশ পথের মুখেই চশমা-মুজিব কোট পরিহিত সাদা মার্বেল পাথর দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ মূর্তি।

এদিকে আজ বিকালে সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে অনুষ্ঠিত ৪৩তম কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলায় ‘বাংলাদেশ দিবস’ অনুষ্ঠানেও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

up-arrow