Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ৬ জুলাই, ২০১৫ ০০:০০ টা আপলোড : ৬ জুলাই, ২০১৫ ০০:০০
নির্বাচন না দিলে দেশ ভয়াবহ অবস্থার দিকে যাবে : খালেদা

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশের চলমান সংকট নিরসন করতে চাইলে সরকারকে অবশ্যই সবার অংশগ্রহণে অর্থবহ নির্বাচন দিতে হবে। অন্যথায় দেশ আরও ভয়াবহ অবস্থার দিকে যাবে।

মারাÍক সংকট তৈরি হবে। গতকাল সন্ধ্যায় রাজধানীর বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব)-এর ইফতার ও  দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
খালেদা জিয়া বলেন, দেশে আজ ভয়াবহ অবস্থা বিরাজ করছে। মানুষ পরিবর্তন চায়, তারা উন্নয়ন চায়, শান্তিতে থাকতে চায়। কিন্তু সরকার জনগণকে এগুলো দিতে পারছে না। এ জন্য জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সবার অংশগ্রহণে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের সুযোগ তৈরি করতে হবে। জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা না গেলে দেশ আরও সংকটের দিকে যাবে। এ সরকার জনগণের দ্বারা নির্বাচিত নয়। এ জন্য জনগণের প্রতি তাদের কোনো দায়বদ্ধতা নেই। তাদের দুর্নীতি আর লুটপাটে দেশ অচল হয়ে পড়েছে। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তিনি প্রকৌশলীসহ সব পেশাজীবীর প্রতি নিজ নিজ অবস্থানে থেকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন শুধু জনগণ নয়, বিদেশিরা কেউ মেনে নেননি। তারা বলছেন, সিটি নির্বাচনেও কোনো নির্বাচন হয়নি। এতেও জনগণ ভোট দিতে পারেনি। এসব নির্বাচনের মাধ্যমে মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। গণতন্ত্র ভূলুণ্ঠিত করা হয়েছে। বেগম জিয়া বলেন, নির্বাহী বিভাগের হস্তক্ষেপে বিচার বিভাগ আগের চেয়েও ‘নিয়ন্ত্রিত’। দেশে আজ সরকারি দলের লোকদের জন্য এক ধরনের নিয়ম, আর বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের জন্যে আরেক রকমের নিয়ম। সরকারের লোকেরা গাড়ি পোড়ানো, মানুষের বাড়ি পোড়ানো, দখল, লুটপাট, গুম, খুন, সন্ত্রাসসহ যত অপরাধই করুক না কেন, তাদের কোনো বিচার হয় না। আর বিরোধী দলের কর্মীরা কিছু না করলেও তাদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার-হয়রানি করা হয়। অথচ বিএনপি গাড়ি পোড়ানোর রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। অ্যাব প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার আ ন হ আখতার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জাতীয় পার্টির (জাফর) চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহমদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ, ভাইস চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন চৌধুরী, বেগম সেলিমা রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow