Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ১ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ১ জুন, ২০১৬ ০৩:৩৫
শাওনের বৈধ স্ত্রী মাহি দাবি আইনজীবীর
কাবিননামা দাখিল
আদালত প্রতিবেদক
শাওনের বৈধ স্ত্রী মাহি দাবি আইনজীবীর

চিত্রনায়িকা শারমিন আক্তার নীপা ওরফে মাহিয়া মাহির সঙ্গে শাহরিয়ার ইসলাম ওরফে শাওনের বিয়ের প্রমাণ হিসেবে কাবিননামা আদালতে উপস্থাপন করা হয়েছে। গতকাল ঢাকার মহানগর হাকিম মাজহারুল ইসলামের আদালতে এ কাবিননামা উপস্থাপন করেন আসামি শাওনের আইনজীবী মো. বেলাল হোসেন। বিয়ে সম্পর্কে আইনজীবী আদালতকে জানান, ২০১৫ সালের ১৫ মে মাহিয়া মাহির সঙ্গে পারিবারিকভাবে শাওনের বিয়ে হয়। রাজধানীর বাড্ডার কাজি অফিসের কাজি মোহাম্মাদ সালাহউদ্দিন এই বিয়ে পড়ান। ওই কাবিননামায় দেনমোহর ধরা হয় চার লাখ টাকা। এর মধ্যে দুই লাখ টাকা পরিশোধ করা হয়েছে। কাবিননামায় উল্লেখ রয়েছে, শাহরিয়ারের সঙ্গে বিয়ের আগে মাহির আর কোনো বিয়ে হয়নি। তাই বাদিনী মাহি আসামির বৈধ স্ত্রী। এ কারণে বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবি প্রকাশ করা হয়েছে, যা কোনো মানহানিকর, অশ্লীল ও উসকানিমূলক নয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের অপরাধের আওতায় এটি আসে না। মুসলিম আইন অনুযায়ী স্বামী বর্তমান থাকায় স্ত্রী দ্বিতীয় বিয়ে করতে পারেন না। যদি স্বামী থাকা অবস্থায় কোনো নারী আরেকটি বিয়ে করেন, তা ফৌজদারি অপরাধ। বরং মাহি তার বিয়ের কথা গোপন করে গত ২৫ মে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মোহাম্মদ অপুকে বিয়ে করেন। এর আগে আসামি শাওনকে দুই দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করে ফের সাত দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন গোয়েন্দা পুলিশের এসআই সোহরাব মিয়া। এ সময় শাওনের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। এর আগে ২৭ মে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে বাদী হয়ে মামলা করেন মাহিয়া মাহি। পরে আসামি শাওনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ দুই দিন রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি পায়। মামলায় মাহি উল্লেখ করেছেন, ২৭ মে তার বন্ধু শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে তার কিছু ছবি কয়েকটি অনলাইন নিউজপোর্টাল ও ফেসবুকের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে শাহরিয়ার ছাড়া তার কয়েকজন বন্ধুও জড়িত বলে তার ধারণা।




up-arrow