Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৬ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ৬ জুন, ২০১৬ ০৩:৪১
সংঘর্ষে নিহত আরও দুই
নিজস্ব প্রতিবেদক

নির্বাচনোত্তর সহিংসতায় প্রাণ গেল আরও দুইজনের। ষষ্ঠ ও শেষ  ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের এক  দিন পর গতকাল দুপুরে শেরপুর সদর হাসপাতালে বুরুজ আলী নামে একজন মারা যান। নির্বাচনের দিন তিনি আহত হন। এছাড়া সুনামগঞ্জ, দিনাজপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নাটোর ও কিশোরগঞ্জেও নির্বাচনী সহিংসতার খবর পাওয়া গেছে। জয়পুরহাটে গুলিবিদ্ধ নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদসহ দুজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আনা হয়েছে। আমাদের বিভাগীয় নিজস্ব প্রতিবেদক ও জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর— শেরপুর : নির্বাচনী সংঘর্ষে আহত হওয়ার এক দিন পর গতকাল দুপুরে শেরপুর সদর হাসপাতালে বুরুজ আলী নামে একজন মারা যান। বুরুজ আলী শ্রীবর্দী উপজেলার ভেলুয়া ইউনিয়নের গলিদাপাড়ার বাসিন্দা। শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল ওয়ারিশ জানান, শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গলিদাপাড়া গ্রামে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থী ফরহাদ আলী ও আজিজুল হকের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে বুরুজ আলী আহত হন। পরে তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই মারা যান তিনি। হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সৈয়দ লিয়াকত হাসানের বিজয় মিছিলে হামলার ঘটনায় মনির হোসেন (১৫) নামের এক কিশোর নিহত হয়েছে। এ সময় কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়। সংঘর্ষে টমটম, সিএনজি অটোরিকশা ও মিনি ট্রাকসহ প্রায় ২০টি যানবাহন ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। গতকাল রাত ৮টার দিকে এ সংঘর্ষ হয়। সুনামগঞ্জ : সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বালিজুরি ইউনিয়নে পরাজিত আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকদের হামলায় এক কলেজ শিক্ষকসহ তিনজন আহত হয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল দুপুরে বালিজুরি বাজারে ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পরাজিত প্রার্থী আতাউর রহমানের সমর্থক মাহমুদুর ও মতিউরের নেতৃত্বে একদল যুবক বিএনপির পরাজিত প্রার্থী শাখাওয়াত হোসেনের নির্বাচনী অফিসে হামলা চালায়। দিনাজপুর : বিরলের উত্তর জগতপুরে নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য মো. শামসুল আলমের সমর্থকরা বিজয় মিছিল বের করলে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো. আনারুল ইসলামের সমর্থকদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় গুরুতর আহত হয় চারজন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে গত শনিবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাচন কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নাটোর : বড়াইগ্রাম উপজেলার চান্দাই ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান খেচুর সমর্থকরা চান্দাই উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আযাদকে বিদ্যালয় মাঠে প্রকাশ্যে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সামনে পিটিয়ে তার দুই পা ভেঙে দেয়। জয়পুরহাট : গুলিবিদ্ধ ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মারাত্মক আহত জয়পুরহাটের সদর উপজেলার ভাদশা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ ও তার প্রতিবেশী নয়নকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিএনপি-জামায়াত কর্মকাণ্ডের ধারাবাহিকতায় ইউপির সহিংসতা : বিএনপি-জামায়াত জোটের বিগত তিন বছরের নৈরাজ্যমূলক সহিংস কর্মকাণ্ডের ধারাবাহিকতায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কিছু বিচ্ছিন্ন সহিংস ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেছে আওয়ামী লীগ। গতকাল বিকালে দলীয় সভাপতির কার্যালয়ে সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপি যদি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন রাজনৈতিক ভাবে মোকাবিলা করত তাহলে এই ধরনের সহিংস ঘটনা কমে যেত। বিএনপি শুরু থেকেই ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে এই নির্বাচন ও নির্বাচন কমিশনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার পথ বেছে নিয়েছে। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর ওপর ভর করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করেছে। পাশাপাশি ব্যক্তিগত ও সামাজিক দ্বন্দ্ব কেন্দ্র করে সংঘটিত সহিংসতাকে নির্বাচনী সহিংসতা হিসেবে চালিয়ে দিয়ে সরকার ও নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে চাচ্ছে বিএনপি। তিনি বলেন, দেশের ৭৬ দশমিক ৮৭ ভাগ মানুষ ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে। ৩০ হাজারের অধিক কেন্দ্রের মধ্যে বিভিন্ন অনিয়মের কারণে নির্বাচন কমিশন ৩৪৬টি ভোট কেন্দ্র বন্ধ করেছে, যা দশমিক শূন্য ৫ শতাংশের নিচে। নির্বাচন কমিশন ও সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করেছে। চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার স্ত্রী হত্যার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে হানিফ বলেন, এই হত্যাকাণ্ড কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়, এটা সুপরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করতে ও সরকারকে উত্খাত করতে যারা দীর্ঘ দিন ধরে সহিংসতা চালাচ্ছে তাদের কর্মকাণ্ডের একটা অংশ বলে আমরা মনে করি। ‘গণতন্ত্র সংকুচিত হওয়ায় দেশে গুপ্তহত্যা বাড়ছে’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন মন্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, এই কথার মাধ্যমে প্রকারন্তরে কি ফখরুল সাহেব হত্যার দায় স্বীকার করে নিচ্ছেন? তাহলে কি তারা তাদের কর্মসূচি পালন করতে পারছেন না বলে এ ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে প্রমাণ করতে চাচ্ছেন দেশে গণতন্ত্র নাই? আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীর কবির নানক, আহমদ হোসেন, বি এম মোজাম্মেল হক, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আফজাল হোসেন, ফরিদুন্নাহার লাইলী, স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, এস এম কামাল হোসেন, এ কে এম এনামুল হক শামীম, সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।




up-arrow