Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ৭ জুন, ২০১৬ ২৩:২২
হিলারি যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী
প্রতিদিন ডেস্ক
হিলারি যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্বাধীন হয় ১৭৭৬ সালে। আর সেই স্বাধীনতার ২৪০ বছর পর দেশটিতে কোনো নারী প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী হচ্ছেন। বার্তা সংস্থা এপি জানিয়েছে, গত রবিবার পুয়ের্তো রিকোয় অনুষ্ঠিত প্রাইমারির পর হিলারি তার মনোনয়নের জন্য প্রয়োজনীয় ২ হাজার ৩৮৩ জন প্রতিনিধি বা ডেলিগেটের সমর্থন পেয়ে গেছেন। এর পরই তিনি বলেন, ‘সামনেই গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। আর আমাদের এক একটি ভোটের জন্য লড়াই করতে হবে।’

অন্যদিকে, তার বিরোধী বার্নি স্যান্ডার্স হিলারির জয় নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তার কথায়, ‘মিসেস ক্লিনটন কখনই জয়ী হতে পারবেন না। কারণ উনি সম্পূর্ণভাবে প্রতিনিধিদের সমর্থনের ওপর নির্ভর করে রয়েছেন।’ সংবাদ সংস্থা এপির ঘোষণায় এ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ডেমোক্রেটিক দলের প্রাইমারি নির্বাচনের ফলাফলে অর্জিত ডেলিগেট ছাড়াও ‘সুপার ডেলিগেটদের’ সংখ্যা যোগ করা হয়েছে। সে কথা উল্লেখ করে স্যান্ডার্সের নির্বাচনী দফতর থেকে জানানো হয়, সুপার ডেলিগেটরা জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে দলীয় সম্মেলনে ভোট দেবেন। এর আগে তাদের সংখ্যা হিসাবে আনা অযৌক্তিক। স্যান্ডার্স আশা করছেন, গতকালের প্রাইমারিতে চমৎকার ফল অর্জন করে তিনি সুপার ডেলিগেটদের মত পরিবর্তন করাতে সক্ষম হবেন।

ডেমোক্রেটিক দলের নির্বাচিত প্রতিনিধি ও দলীয় কর্মকর্তারা ‘সুপার ডেলিগেট’ হিসেবে দলীয় সম্মেলনে ভোট দেওয়ার অধিকার রাখেন। তাদের প্রায় ৪০০ জন বাছাই পর্বের নির্বাচন শুরু হওয়ার আগেই হিলারির পক্ষে নিজেদের সমর্থন ঘোষণা করেন। এখন তাদের মোট সংখ্যা বেড়ে ৫৭১-এ দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে, স্যান্ডার্সের পক্ষে রয়েছেন মাত্র ৪৮ জন সুপার ডেলিগেট। এখনো ৯৩ জন সুপার ডেলিগেট তাদের সিদ্ধান্ত প্রকাশ করেননি। স্যান্ডার্স যুক্তি দেখিয়েছেন, অধিকাংশ জনমত জরিপ অনুসারে, সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তিনি রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অনায়াসে পরাজিত করতে পারবেন। সে কারণে দলের স্বার্থে সুপার ডেলিগেটদের উচিত তাদের সিদ্ধান্ত বদলে তাকে সমর্থন করা।

নির্বাচনী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সুপার ডেলিগেটদের সমর্থন ছাড়া শুধু বাছাই পর্বের নির্বাচন থেকে হিলারি বা স্যান্ডার্স কেউই প্রয়োজনীয়সংখ্যক ডেলিগেট সংগ্রহ করতে পারবেন না। জনমত জরিপের মডেল অনুসারে, গতকালের প্রাইমারিতে দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে আনুপাতিক হারে ডেলিগেট ভাগাভাগির পরও হিলারির অন্তত ২০০ ডেলিগেটের কমতি পড়বে। আর স্যান্ডার্সের ঘাটতির পরিমাণ থাকবে ৫০০-এর বেশি। আজকের প্রাইমারি ভোটের পর ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী কে হচ্ছেন, তা পরিষ্কার হয়ে যাবে। এই হিসাব মাথায় রেখে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এ সপ্তাহেই হিলারির পক্ষে তার সমর্থন ঘোষণা করবেন বলে জানা গেছে।

তবে হোয়াইট হাউস সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দলের পক্ষে প্রচারে অংশ নিতে আগ্রহী বারাক ওবামা। প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার অর্জন যাতে বৃথা না যায়, সেজন্য তিনি একজন ডেমোক্রেটিক প্রার্থীকে হোয়াইট হাউসে দেখতে চান। আর সেই প্রার্থী যে হিলারি, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।




up-arrow