Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৭ জুন, ২০১৬ ২৩:৩৭
ছুটির দিনে জমজমাট ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল ফেস্ট
নিজস্ব প্রতিবেদক
ছুটির দিনে জমজমাট ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল ফেস্ট
ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় দক্ষিণ এশীয় ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল ফেস্টে গতকাল ক্রেতার ঢল —জয়ীতা রায়

ছুটির দিনে গতকাল ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরা (আইসিসিবি)-এর দক্ষিণ এশীয় ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল ফেস্ট-এ ক্রেতার ঢল নেমেছিল। জমজমাট ছিল কেনাবেচা। ১২ জুন থেকে শুরু হওয়া এ মেলায় ভারত, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড, ইরান ও বাংলাদেশের মোট ৫৫টি স্টল অংশ নিয়েছে। এ আয়োজন চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত।

ঈদের পোশাক ক্রয়ের পাশাপাশি এখানে ক্রেতাদের জন্য ঘর সাজানোর পণ্য ক্রয়েরও সুযোগ রয়েছে। রয়েছে ইলেকট্রনিক্স ও প্রসাধনী সামগ্রীও। প্রথমবারের মতো এ আয়োজনে ক্রেতাদের দারুণ সাড়া পাওয়ায় আয়োজক কর্তৃপক্ষ সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। গতকাল বিকালে লাইফস্টাইল ফেস্টে গিয়ে দেখা যায়, নানা বয়সী ক্রেতার আগমনে গমগম করছে আয়োজনস্থল। বিশেষ করে মেয়েদের বিভিন্ন পণ্য বেশি বিক্রি হতে দেখা যায়। পাকিস্তানি এমব্রয়ডারির ওপর স্টিচ ও আনস্টিচ সালোয়ার-কামিজগুলো দর্শকদের দৃষ্টি কাড়ে। একইভাবে ভারতের পাঞ্জাবের তৈরি জুতা ও নাগপুরি জুতা নজরকাড়া নকশার জন্য ক্রেতার আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। এক বিক্রেতা জানান, আমাদের এখানে পাঞ্জাবের তৈরি ভালো মানের নাগড়া জুতা পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়া কিছু জয়পুরি জুতাও আছে। জুয়পুরি জুতাগুলো ৬০০ টাকা এবং পাঞ্জাবি নাগড়া বিক্রি হচ্ছে ৮০০ টাকায়। তিনি আরও জানান, প্রথম দিন থেকেই তার স্টলে কেনাবেচা ভালো। দেখা যায়, থাইল্যান্ডের স্টলে মেয়েদের বিভিন্ন প্রসাধনী আইটেম ও ছেলেদের টি-শার্ট পাওয়া যাচ্ছে। শিশুদের জন্য এই স্টলে রয়েছে মাথার সুন্দর সুন্দর ব্যান্ড ও রাবার। এ ছাড়াও রয়েছে মেয়েদের বিভিন্ন গলার মালা ও কানের দুল। অন্যান্য স্টলের মধ্যে রয়েছে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের স্টল। আরআরএম ইলেকট্রনিক্স ওয়ার্ল্ড লিমিটেডের স্টলে কফি মেকার, ভ্যাকুয়াম ক্লিনার, রাইস কুকারসহ নানা প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিক্রি হচ্ছে। অন্য স্টলগুলোতে রয়েছে পেনাসনিকের হেয়ার ড্রায়ার সেট ও ইলেকট্রনিক শেভিং সেট। মেলায় আগত দর্শকদের জন্য আরও রয়েছে বিখ্যাত রোস্টেড কফি বিন পাউডার, হারবাল প্রসাধনী ইত্যাদি। এর বাইরে বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি ফার্নিচারের দোকানও এই আয়োজনে অংশ নিয়েছে। এতে সোফা, টেবিল লাইট, দেয়ালে সাজানো ছবি, আলমারি, ড্রেসিং টেবিল ইত্যাদি বিক্রি করা হচ্ছে। আয়োজক কর্তৃপক্ষ জানান, রোজার কারণে সাধারণত সকালে ক্রেতার আগমন সবচেয়ে বেশি। এ ছাড়াও ইফতারের পর ক্রেতা সমাগম ভালো হয়। বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার পাশাপাশি ঢাকার অন্যান্য এলাকা থেকেও লাইফস্টাইল ফেস্টে মানুষ আসছেন। এমনকি বিদেশি ক্রেতাদের অনেকে এখানে এসে কেনাকাটা করছেন। এরই মধ্যে বেশ কয়েকজন মডেল ও ফ্যাশন ডিজাইনার এই আয়োজনে এসেছেন। নিয়ম অনুযায়ী প্রতিটি দোকান থেকে কেনাকাটা করলেই ক্রেতারা একজন মডেল বা সেলিব্রেটির সঙ্গে সেলফি তোলার সুযোগ পান। এরই মধ্যে আগ্রহী ক্রেতাদের অনেকেই তাদের পছন্দের মডেলদের সঙ্গে সেলফি তোলার সুযোগ পেয়েছেন।

up-arrow