Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ১৯ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ১৮ জুন, ২০১৬ ২২:৪৫
এবার মানুষের হাতে লাঠি ও বাঁশি দিলেন খুলনার ডিআইজি
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
এবার মানুষের হাতে লাঠি ও বাঁশি দিলেন খুলনার ডিআইজি
সাতক্ষীরার মুন্সীপাড়া শ্যামসুন্দর মন্দির প্রাঙ্গণে গতকাল মানুষের মাঝে লাঠি ও বাঁশি দিচ্ছেন খুলনা ডিআইজি এস এম মনির উজ-জামান মনি —বাংলাদেশ প্রতিদিন

জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে গণ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সাতক্ষীরায় সাধারণ মানুষের হাতে লাঠি ও বাঁশি তুলে দিলেন খুলনা রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি এস এম মনির উজ-জামান। গতকাল দুপুরে সাতক্ষীরা শহরের মুন্সিপাড়া শ্যামসুন্দর মন্দির প্রাঙ্গণে সন্ত্রাস ও জঙ্গি তত্পরতা বিরোধী এক আলোচনাসভা শেষে তিনি শত শত নারী-পুরুষের হাতে বাঁশি ও বাঁশের লাঠি তুলে দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন খুলনা পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান হাবিব, সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর মোছাদ্দেক আলী, সাতক্ষীরা জেলা পূজা উদযাপন পর্ষদের সভাপতি মনি ঠাকুর, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বিশ্বজিৎ সাধু, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট অনিত মুখার্জি, সদর থানার ওসি এমদাদ শেখ প্রমুখ।

ডিআইজি এস এম মনির উজ-জামান সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ২০১৩ সালে ও ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় যারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করেছিল তারাই মূলত বর্তমানে দেশে জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব নষ্ট করছে। এদের বিরুদ্ধে দল-মত নির্বিশেষে গ্রামে-গ্রামে, পাড়া-মহাল্লায় ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলা সম্ভব হলে সমাজ ও রাষ্ট্র থেকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড অনেক অংশে কমে আসবে। ডিআইজি আরও বলেন, আমরা নিরবে মার খেয়ে যাব আর প্রাণ হারাবো তা কখনোই হবে না। সন্ত্রাস দমনে আইনানুগভাবে যতটুকু কঠোর হওয়া দরকার ততটুকু কঠোর হতে পুলিশ বদ্ধপরিকর। জনতার প্রতিরোধের চেয়ে বড় প্রতিরোধ ও শক্তি আর কিছুই হতে পারে না। তাই জনতার শক্তি দিয়েই সেই অপশক্তিকে প্রতিরোধ করতে হবে।




up-arrow