Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : রবিবার, ২৬ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৫ জুন, ২০১৬ ২৩:১৩
মেট্রোরেল ও বাস ট্রানজিট প্রকল্পের উদ্বোধন আজ
নিজামুল হক বিপুল

বহুল প্রতীক্ষিত মেট্রোরেল লাইন-৬ এবং বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হচ্ছে  আজ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ৪৫ মিনিটের এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই বড় দুই প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন করবেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে রাজধানীর যানজট সমস্যা নিরসনে বৃহৎ এই প্রকল্পের কাজে নতুন করে গতি আসবে। ২০০৮ সালে সরকার অনুমোদিত এসটিপি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ঢাকা ট্রান্সপোর্ট কো-অডিনেশন অথরিটি বা ডিটিসিএর তত্ত্বাবধানে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি-জাইকা ২০০৯ ও ২০১১ সালে আরবান ট্রান্সপোর্ট নেটওয়ার্ক ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাডি (ডিএইচইউটিএস) শিরোনামে দুটি সমীক্ষা পরিচালনা করে। প্রথম সমীক্ষার আওতায় উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত এমআরটি লাইন-৬ এবং বিআরটি লাইন-৩ কে প্রাধিকার দেওয়া হয়। দ্বিতীয় সমীক্ষার আওতায় ২০১১ সালে এমআরটি লাইন-৬ এর ওপর সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ সম্পন্ন হয়। পরবর্তীতে ২০১২ সালের ১৮ ডিসেম্বর ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (ডিএমআরটিডিপি) শীর্ষক প্রকল্পের ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট প্রপোজাল একনেক বৈঠকে অনুমোদিত হয়। প্রকল্পটি জাইকার অর্থায়নে বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি ৭ লাখ টাকা। যার মধ্যে প্রকল্প সাহায্য হচ্ছে ১৬ হাজার ৫৯৪ কোটি ৫৯ লাখ টাকা এবং জিওবি ৫ হাজার ৩৯০ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। এমআরটি লাইন-৬ এর দৈর্ঘ্য ২০ দশমিক ১ কিলোমিটার। রুটটি হবে সম্পূর্ণ এলিভেটেড। এমআরটি লাইন-৬ হবে উত্তরা ৩য় পর্ব থেকে শুরু হয়ে পল্লবী-রোকেয়া সরণির পশ্চিম পাশ দিয়ে খামারবাড়ী হয়ে ফার্মগেট-হোটেল সোনারগাঁও-শাহবাগ-টিএসসি-দোয়েল চত্বর-তোপখানা রোড দিয়ে মতিঝিল বাংলাদেশ ব্যাংক পর্যন্ত। এ লাইনে থাকবে ১৬টি স্টেশন। এগুলো হচ্ছে— উত্তরা উত্তর, উত্তরা সেন্টার, উত্তরা দক্ষিণ, পল্লবী, মিরপুর-১১, মিরপুর-১০, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া, আগারগাঁও, বিজয় সরণি, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ সচিবালয় এবং মতিঝিল। প্রতি ঘণ্টায় উভয়দিকে ৬০ হাজার যাত্রী পরিবহন করবে মেট্রোরেল-৬। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত যাতায়াতে সময় লাগবে মাত্র ৩৮ মিনিট। সকাল ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত প্রতি ৪ মিনিট বিরতিতে ট্রেন ছাড়বে। মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ডিপিপি অনুযায়ী প্রকল্পের মেয়াদ ছিল জুলাই ২০১২ হতে জুন ২০২৪ পর্যন্ত। তবে সরকারের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে প্রকল্পটি নির্দিষ্ট সময়ের আগেই কমিশনিংয়ের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। সে অনুযায়ী ২০১৯ সালে উত্তরা ডিপো থেকে আগারগাঁও স্টেশন পর্যন্ত অংশে মেট্রোরেল বাণিজ্যিক চলাচল শুরু করবে। ২০২০ সালে মতিঝিল পর্যন্ত ট্রেন চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে। বাস র‌্যাপিট ট্রানজিট : আজ একই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন বাস র‌্যাপিট ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের নির্মাণ কাজেরও।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow