Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ২৯ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৮ জুন, ২০১৬ ২৩:৫৫
সম্ভাবনা
খনিজ সম্পদের নতুন ক্ষেত্রের সন্ধান নওগাঁয়
নওগাঁ প্রতিনিধি
খনিজ সম্পদের নতুন ক্ষেত্রের সন্ধান নওগাঁয়

উত্তরাঞ্চলের জেলা নওগাঁর মহাদেবপুর ও সাপাহার উপজেলার বরেন্দ্রভূমিতে আবারও নতুন একটি খনিজ সম্পদ এলাকার সন্ধান পেয়েছে বাংলাদেশ ভূতাত্ত্বিক জরিপ অধিদফতর (জিএসবি)। জিএসবির সহকারী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম খান সম্প্রতি নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার তাজপুরে সদ্য আবিষ্কৃত দেশের সর্ববৃহৎ চুনা পাথরের খনি তাজপুর পরিদর্শনে গিয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিনের কাছে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, নতুন খনিজ এলাকায় কী ধরনের সম্পদ আছে তা নিশ্চিত হতে চলতি অর্থবছরের আগস্ট-সেপ্টেম্বর নাগাদ কাজ শুরু করা হবে। এ ছাড়া বদলগাছী উপজেলার তাজপুরে সদ্য আবিষ্কৃত দেশের সর্ববৃহৎ চুনা পাথরের খনিতে আরও কয়েক বছর ধরে অনুসন্ধান চালানোর কথা জানান তিনি। তিনি আরও বলেন, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে (Strengthening The Research And Exploration Capability (Strec) Of The Geological Survey Of Bangladesh) প্রকল্পের আওতায় নওগাঁর মহাদেবপুর ও সাপাহার উপজেলায় প্রাথমিক জরিপ চালানো হয়। এতে মাটির আড়াই থেকে তিন হাজার ফুট গভীরে খনিজ সম্পদ থাকার তথ্য পাওয়া গেছে। তবে তা নিশ্চিত হতে এ বছর গবেষণামূলক আরও দুটি জরিপ চালানো হবে ওই এলাকায়। এদিকে বদলগাছীর তাজপুরে আবিষ্কৃত দেশের সবচেয়ে বড় চুনা পাথরের খনির প্রথম কূপের কাজ শেষ করা হয়েছে। তবে এ খনিতে চুনা পাথর ছাড়াও কয়লা বা অন্য কোনো সম্পদ আছে কিনা, তার অনুসন্ধানে আরও তিন-চার বছর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানোর কথা জানান তিনি। একই সঙ্গে নতুন খনি এলাকায় গবেষণা চালানোর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা।

এদিকে নওগাঁয় আবারও নতুন খনির সন্ধান পাওয়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছে স্থানীয় ব্যবসায়ী মহল।

জেলার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মোহাম্মদ আলী দ্বীন বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, নওগাঁয় খনিজ সম্পদ পাওয়ায় নওগাঁর মানুষ খুশি। এদিকে নওগাঁ তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মহসিন রেজা বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, যাতায়াতব্যবস্থাসহ এলাকার কিছু অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করানো গেলে উত্তরাঞ্চলের জেলা নওগাঁ হতে পারে খনিজ সম্পদ আহরণের একটি বড় ক্ষেত্র। উল্লেখ্য, প্রায় দুই বছর ধরে বগুড়ার সান্তাহার, নওগাঁর তিলকপুর, তাজপুর ও জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে জিএসবির ভূতাত্ত্বিক জরিপে দেশের মধ্যে সবচেয়ে বড় চুনা পাথর খনির সন্ধান পাওয়া যায় নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার তাজপুরে। চলতি বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ভূতাত্ত্বিক জরিপ অধিদফতর এ খনির খনন কার্যক্রম শুরু করে। ২ হাজার ২১৪ ফুট গভীরে প্রথমে মেলে চুনা পাথর। প্রায় ৫০ বছর আগে এ এলাকায় প্রাথমিকভাবে খনিজ সম্পদের ওপর জরিপ চালানো হয়েছিল। তখন চুনা পাথর অথবা কয়লা পাওয়া যেতে পারে বলে বিশেষজ্ঞরা মত দিয়েছিলেন। কিন্তু দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও এ নিয়ে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালনো হয়নি। বর্তমান সরকারের সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে খনিজ সম্পদ অনুসন্ধান শুরু হলে সন্ধান পাওয়া যায় তাজপুরে চুনা পাথরের।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow